নৌমন্ত্রীর দোহাই দিয়ে শিমুলিয়া-কাওরাকান্দি ঘাটে সি-বোটে যাত্রীর কাছ অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ

photo-1467704393

মঈনউদ্দিন সুমন: ৬ জুলাই ২০১৬ (মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম) : ঈদকে সামনে রেখে সি-বোটে করে গন্তব্যে ছুটছেন সাধারণ মানুষ। আর নৌমন্ত্রীর দোহাই দিয়ে এসব যাত্রীর কাছ থেকে আদায় করা হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া।

প্রতিবছরই ঈদ মৌসুমে বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের ভাড়া বাড়িয়ে দেয় এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী। এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। খোদ নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের দোহাই দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের প্রবেশদ্বার শিমুলিয়া-কাওরাকান্দি নৌপথে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়াঘাটে ঈদে ঘরমুখো সি-বোটযাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার সকাল থেকে সি-বোটে পদ্মা পারাপারে যাত্রীপ্রতি ৫০-৭০ টাকা অতিরিক্ত আদায় করার এই অভিযোগ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে শাজাহান খানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হয়। তিনি এনটিভিকে বলেন, ‘এটা কি মগের মুল্লুক যে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করবে?’

মন্ত্রীর দোহাই দিয়ে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে বলে যে অভিযোগ পাওয়া গেছে, তার পরিপ্রেক্ষিতে শাজাহান খান বলেন, ‘একজন মন্ত্রী কি বলতে পারেন যে যাত্রীদের কাছ থেকে বেশি ভাড়া নিতে হবে? আর আমিই বা কেন ইজারাদারকে বলতে যাব ভাড়া বেশি নিতে?’

শিমুলিয়া ঘাটে কর্তব্যরত ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও লৌহজং উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খালেকুজ্জামান বলেন, সি-বোটে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করার প্রমাণ পেয়েছেন তিনি।

খালেকুজ্জামান আক্ষেপ করে বলেন, সি-বোট ঘাটের ইজারাদার আশরাফ খান যাত্রীপ্রতি ৫০ টাকা বেশি আদায় করার ক্ষেত্রে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খানের দোহাই দিয়েছেন। এ ব্যাপারে কোনো শাস্তিমূলক পদক্ষেপ নেওয়া যাচ্ছে না।

গতকাল সোমবার যাত্রী হয়রানির কারণে চারটি সি-বোটকে ছয় হাজার টাকা জরিমানা করা হয় বলে জানান ইউএনও।

এ ব্যাপারে ঘাটের ইজারাদার আশরাফ খানের সঙ্গে বারবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। এনটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here