রিকল থাকা সত্তেও হাতিমারা তদন্ত কেন্দ্র ইয়ামিনের কাছ থেকে মোটা টাকা হাতিয়ে নেয়

%e0%a6%aa%e0%a7%81%e0%a6%b2%e0%a6%bf%e0%a6%b6

৮ সেপ্টেম্বর  ২০১৬ (মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডেস্ক) : রিকল থাকা সত্তেও মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার হাতিমারা পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ মো: ইয়ামিন দেওয়ানকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে আসে। পরে ২৫ হাজার টাকার বিনিময়ে পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয় মো: ইয়ামিন দেওয়ান ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছে।

অভিযোগে জানা যায়, মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলার রামপাল ইউনিয়নের পানহাটা গ্রামের মৃত হাতেম ক্বারী দেওয়ান এর পুত্র মো: ইয়ামিন দেওয়ান এর বিরুদ্ধে একটি মামলা মুন্সিগঞ্জ যুগ্ম জেলা জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। যার সেশন মামলা নং হচ্ছে ১৭৩/১০। এই মামলায় বিজ্ঞ আদালত মো: ইয়ামিন দেওয়ানের বিরুদ্ধে গ্রেফতার পরোয়ানা জারি করলে সে ৩১ মাচ ২০১৬ তারিখে আদালতে আত্ন সমপন করে। সেই দিনই বিজ্ঞ আদালত তাকে জামিন প্রদান করে। সেই দিন মো: ইয়ামিন দেওয়ান জামিনের ফটোকপি মুন্সিগঞ্জ থানায় পৌছে দেয়।

৫ সেপ্টেম্বর রাত ২টার দিকে হাতিমারা তদন্ত কেন্দ্রের এ.এস.আই.সালাউদ্দিন মো: ইয়ামিন দেওয়ানের বাড়িতে যায়। সেই সময় সালাউদ্দিন জানায় মো: ইয়ামিনের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট আছে। থানায় যেতে হবে। যে মামলায় ইয়ামিন জামিনে আছে সেই মামলার রিকলের বিষয়ে সালাউদ্দিনকে জানালেও ইয়ামিনকে পুলিশ জোর করে হাতিমারা তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে আসে। এরপর পুলিশ ইয়ামিনকে ছাড়াতে তার পরিবারের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করে। এরপর ইয়ামিনের ভাই রুহুল দেওয়ান ৫ হাজার টাকা দেয়।

হাতিমারা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচাজ এস.আই হাফিজের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, ইয়ামিনকে কেন্দ্রে আনার পর হাফিজ নানা রকমের ভয়ভীতি দেখিয়ে ইয়ামিনের কাছে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। তারা পরে আরো ২০ হাজার টাকা দিয়ে কেন্দ্র থেকে ছাড়া পায়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here