আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য: টঙ্গীবাড়িতে জমি বেদখলের পায়তারা

map-of-munshiganj-মুন্সিগঞ্জের-মানচিত্র

২৬ সেপ্টেম্বর  ২০১৬ (মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডেস্ক) : টঙ্গীবাড়িতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে চলছে জমি বেদখলের পায়তারা।

টঙ্গীবাড়ি উপজেলাধীন বেতকা চৌরাস্তা সংলগ্ন, উত্তর বেতকা আঃ কুদ্দুছ শেখ, পিতা মৃত-আলী হোসেন শেখ এর ক্রয় কৃত সম্পত্তি ৫ পাঁচ দাগে ৩২ শতাংস জায়গার মালিক, এবং ১৯ শতংশ জায়গা, নামজারী সহ হালনাগাদ খাজনা, পরিশোধ করা, এরমধ্যে ঘর বাড়ি, ও গাছপালা রয়েছে। ২০১২ সাল থেকে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি শাহ জালাল শিকদার ও এস এম তারিক আল হাসান লিউ গং উক্ত জমি দখলের পায়তারা করে আসছে।

কিন্তু তৎকালীন চেয়ারম্যান তাদের পক্ষে না থাকায়, দখল টি সম্ভব হয়নি , এবং পরে এলাকার লোকের কথায় দিন মজুর, আঃ কুদ্দুছ শেখ গং আদালতে একটি দেওয়ানী মোকদ্দমা করে যাহার মামলা নং ৬৫/১২ দিন মজুর আঃ কুদ্দুছ শেখ গং মামলা করে অভাবের তারনায় , টাকা পয়সার জন্য ঠিক মত মামলা চালাতে পারে না। জানা যায়, আঃ কুদ্দুছ শেখ, গাছ কাটার ও লাকরী কাটার কাজ করে, তার ছোট ভাই ইকবাল রিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে।
এর মধ্যে, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উক্ত প্রভাবশালীদের সমর্থীত প্রার্থী জয় লাভ করে, মসনতে বসতে না বসতেই, ড্রেজার লাগিয়ে, আঃ কুদ্দুছ শেখ গংদের ওই জায়গায় জোর পূর্বক গাছ গাছলার উপর দিয়েই বালু ভরাট করা শুরু করে, এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় কেহ কিছু বলার সাহস করে না। উপায় না দেখে, আঃ কুদ্দুছ শেখ, উকিল সাহেবের কাছে যান তার পর উকিল সাহেব মানবিক দিক চিন্তাকরে, আদালতের মাধ্যমে একটি নিষেধাজ্ঞা জারি করে, তারপর ও প্রভাবশালী শাহ জালাল শিকদার ও এস এম তারিক আল হাসান লিউ গং মহলটি আদালতের নিষেধাজ্ঞা কে তোয়াক্কা না করে নিজ তদারকিতে লেবার দিয়ে কাজ করছেন এবং ঐ জায়গায় এখন বিক্রির জন্য, প্লট তৈরি কাজ করছেন। যদি এমন টাই হয় তা হলে অসহায় মানুষ গুলি কোথায় দাড়াবে, তাদের বিচার করবে কে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here