আলোচিত ডিসিকে নিয়ে মুজিব রহমানের ফেস বুকে অভিমত

%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%87%e0%a6%ab%e0%a7%81%e0%a6%b2-%e0%a6%b9%e0%a6%be%e0%a6%b8%e0%a6%be%e0%a6%a8-%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a6%a6%e0%a6%b2

৩০ সেপ্টেম্বর  ২০১৬ (মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডেস্ক) : মুন্সীগঞ্জের সদ্যবিদায়ী ডিসি সাহেবের প্রতি একটি খোলাচিঠি দিয়েছিলাম। সেটা ছিল অরণ্যে রোদন। ওনার বিপুল অপরাধের শেষটি হল বিদায়ের আগে চাপ প্রয়োগ করে ৫৭টি সংবর্ধনা নেয়া । আমি আমার গ্রামেও দেখলাম, স্কুলের ছাত্রীদের দলবেধে ভেড়ার পালের মতো ওনার একটি সঙবর্ধনায় নিয়ে যেতে। একটি গ্রাম থেকেও শুধু উপঢৌকনের লোভে কেন সঙবর্ধনা নিতে হবে? যাদের কাছ থেকে জোর করে সংবর্ধনা নিলেন তাদের কি কি সুবিধা দিয়েছেন তাও প্রকাশ করা প্রয়োজন। শুধু সংবর্ধনা নেয়া এই ১৭ দিনে তিনি রাষ্ট্রের কি কি কাজ করলেন বেতনভাতার বিপরীতে? মানুষের লজ্জা কখনো সীমা ছাড়িয়ে যায়। আমি জানি এক সাংবাদিক নিপিড়ন এবং ৮টি পত্রিকা বন্ধ করেই ওনি ইতিহাসের অংশ হয়েছেন এবং ৫৭টি সংবর্ধনা নিয়েও সেই ইতিহাসকে আরো সমৃদ্ধ করলেন। শুনছি এ সঙবর্ধনা নিয়ে নাকি একটি তদন্তকমিটি হয়েছে। মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরের মানুষ অতিথিপরায়ণ, সুহৃদ, সদাচারী। তাই বলে তাদের সেই সৎগুণাবলীকে জিম্মি করে এভাবে সঙবর্ধনা নেয়া অনৈতিক বৈকি? ওনার সংবর্ধনা কাণ্ড দেখে আমার ভীষণ লজ্জা করছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here