একটু হাত বাড়াও

images

১৫ অক্টোবর ২০১৬ (মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডেস্ক) :

একটু হাত বাড়াও
স্বপ্না শিরীন শিমু

আকাশের সীমানাটাকে পেছনে ফেলে
পৃথিবীর সব ব্যস্ততাকে দু পায়ে ঠেলে
জীবনের যত ছিল আয়োজন,
বিচ্ছিন্ন শত প্রয়োজন
সব কিছুকে ছাড়িয়ে, ফেরারী মনকে নিয়ে
আবারো দাঁড়ালাম-
চিরচেনা সেই আঙ্গিনায়,
যেখানে আমার স্বপ্ন গুলো কেঁদে ফেরে
না পাওয়ার গভীর যন্ত্রণায়।
তোমাকে দেব বলে হাজারো বসন্তে
সাজিয়েছি মরুভূমি হৃদয়ের
বিচ্ছিন্ন নিস্তব্ধ আঙ্গিনা।
মুঠো ভরে স্বপ্ন দেব দু চোখের ছায়া জুড়ে
হৃদয় ভরে সুখ দেব আঁচলে রেখ ধরে।
বৃষ্টি ভেজা ছোঁয়া দেব রংধনুর রং এ
অজান্তে কখনও যদি আমাকে হারাও
পাহাড় ভেঙ্গে ঝরণা দেব
একটু হাত বাড়াও।
নিবিড় সন্ধ্যায় বিচ্ছিন্ন কুয়াশার আড়ালে,
মিলিয়ে যাওয়া ক্লান্ত সূর্যকে
লুটিয়ে দেব, কখনও তোমার পায়ে।
সন্ধ্যার ঘন আধারে পাশে দাঁড়াও
জোসনা ভেজা আকাশের চাঁদকেও,
হৃদয় ভেঙ্গে এনে দেব
একবার হাত বাড়াও।
সাদা কাশের পরশ দেব শরতের আকাশে
দুঃখ গুলো ভাসিয়ে নেব সন্ধ্যার ঝড়ো বাতাসে,
গোধুলীর বেলায় রাঙ্গা মহুয়ার বন
নীড়ে ফেরা সুখের সজীব প্লাবন।
সেই সুখ কুড়িয়ে এনে রাঙ্গিয়ে দেব
উদাসী তোমার মন।
তোমার বুকের ভাবনা হয়ে দূর সীমানায় – হারিয়ে যাব
ফিরবনা আর হৃদয় নীলিমায়।
খুলে দেব শন্কিত যত আবরণ
কুয়াশার কান্নায়, ভিজিয়ে দেব মরুভূমির মন।
কখনও যদি চাও
থামিয়ে দেব অস্তিত্বের স্পন্দন,
এই বিশ্বাসে তুমি হাত বাড়াও।
পৃথিবীর যত ব্যবচ্ছেদ ভুলে
কখনও তোমার রং এ হৃদয়কে রাঙ্গাও
নিশ্বাস টুকু তোমায় দেব
যদি একবার হাত বাড়াও

 

 

 

 

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here