ধর্ষীতা এক নারীর পরিবারের উপর টঙ্গীবাড়িতে চাপের অভিযোগ

রোববার, ২ সে্েপ্টেম্বর ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

টঙ্গীবাড়িতে ধর্ষীতা নারীর পরিবারের উপর চাপ প্রয়োগ করেছে স্থানীয় গ্রাম্য মাদবররা। গত ২৪শে আগষ্ট শুক্রবার রাতে ধীপুর ইউনিয়নের বেলুয়া গ্রামে একটি স্বামী পরিত্যক্ত এক নারীকে ধর্ষণ করে, একই গ্রামের শামসুদ্দোহা(৩৫)।

এ ঘটনায় ধর্ষীতার পরিবারকে থানায় মামলা করতে দেয় নাই গ্রামের ইউপি মেম্বার মোস্তফা, সফি শিকদার, বিল্লাল কাজী, নূর ইসলাম মেম্বার। এ ঘটনায় ইউপি মেম্বার মিমাংসা করার চেষ্টা করে ৩ লক্ষ টাকা জরিমানার মাধ্যমে।

কিন্তু ধর্ষীতা এ রায় মানে নাই। ধর্ষীতা জানান, আমি এ রায় মানি না, আমি টাকা দিয়া কি করুম, আমার সর্বনাশ করছে সামসুদ্দোহা, আমি ওর বিচার চাই। আপনারা ওর বিচার না করলে আমি আত্মহত্যা করুম, এ বলে সে চলে আসে, সে থেকে এ রির্পোট লেখা পযর্ন্ত তার কোন খোজ পাওয়া যায় নাই।

এ দিকে ধর্ষীতা পরিবার যাতে কোন প্রকার অভিযোগ না করতে পারে সে জন্য তাদের নজর বন্দি করে রাখছে মাদবররা। মাদবরা বলে যে আমগো বিরুদ্ধে যাবি, তার খবর আছে।

তাছাড়া মাদবররা ডোরাবতি গ্রামের ভূয়া সাংবাদিক পরিচয়দারী খান বক্কও নামে একজন ধর্ষীত্ার পরিবার কে হুমকি দিয়েছে তারা যেন মাদবর বিল্লাল কাজীর নামে যেন কোন কিছু না বলে তাদের হুমকি দিয়ে আসছে, সে বলে আমি সাংবাদিক যদি বিল্লারের কিছু হয় তগো খবর আছে। তাই ধর্ষীতার পরিবার এখন নিরাপ্তাহীনতায় আছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here