৩০ বছর পর শিকলবন্দি থেকে মুক্ত হলেন মিরকাদিমের রামা সাহা

সব মানুষের সৃজন প্রয়াসী অনলাইন পোর্টাল:

শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

ramasaha

৩০ বছর পর শিকলবন্দি থেকে মুক্ত হলেন মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিম পৌরসভার উত্তর রামগোপালপুর গ্রামের বৃদ্ধ রামা সাহা। শনিবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জের পুলিশ প্রশাসন শিকলবন্দি তালা ভেঙ্গে রামা সাহাকে উদ্ধার করে।

গতকাল শুক্রবার একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সংবাদটি সম্প্রচার হলে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে। পরে শনিবার মুন্সিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমানের নির্দেশে হাতিমারা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সদস্যরা রামা সাহাকে উদ্ধারে মাঠে নামে।

রাম সাহার বাড়ি গিয়ে পরিত্যক্ত একটি জরাজীর্ণ ঘর থেকে তালা ভেঙ্গে রামা সাহাকে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে উদ্ধার করে। পরে তার স্বাস্থ্য পরিক্ষা করতে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক এ এস এম ফেরদৌস রামা সাহাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন।

চিকিৎসক জানান, দীর্ঘবছর বন্দিজীবন-যাপন করায় রামা সাহা কিছুটা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে এবং ওষুধ লিখে দেয়া হয়েছে।

হাতিমারা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানিয়েছেন, উদ্ধতন কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে অভিযানে নেমে রামা সাহাকে শিকলমুক্ত করে উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে, সম্পত্তির লোভে ৩০ বছর ধরে শিকলবন্দি করে রাখার অভিযোগ করেছেন রামা সাহা। কিশোর বয়সে পিতা গৌরাঙ্গ সাহা মারা গেলে সংসারের হাল ধরেন রামা সাহা। বরিশালের আঞ্জুরহাট থেকে ধান-ডাল এনে মিরকাদিম বন্দরের আড়তে তা বিক্রি করতেন রামা সাহা। সম্পত্তির কারণে জীবনের সোনালী সময় শিকলবন্দি থেকে তিনি এখন বৃদ্ধ।

রামা সাহার আত্মীয় স্বজনদের দাবি, বরিশালে ব্যবসা করতে গিয়ে মারধরের শিকার হয়ে রামা সাহা মানসিক ভারসাম্য হারায়। ছেড়ে দিলে অত্যাচার ও উৎপাত করে। এই জন্য তাকে বেঁধে রাখা হয়েছে।

অবজারভার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here