শ্রীনগরে শ্রেণি পরীক্ষার সাথে মিল রেখে প্রথম সাময়িক পরীক্ষা

সব মানুষের সৃজন প্রয়াসী অনলাইন পোর্টাল:

শনিবার, ৪ঠা মে ২০১৯, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

9054e_3edb94c37e_long

শ্রীনগরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সাথে মিল রেখে প্রথম সাময়িক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র করা হয়েছে। গত এক মাস পূর্বে অনুষ্ঠিত শ্রেণি পরীক্ষার সাথে প্রথম সাময়িক (চলতি) পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের প্রায় ৯৫ ভাগ মিল পাওয়া গেছে। উপজেলা শিক্ষা অফিস ও শিক্ষকদের সম্বনয়ে গঠিত পরীক্ষা কমিটি ওই পরীক্ষার প্রশ্নপত্র তৈরী করেন বলে জানা যায়।

অনুসন্ধানে জানা যায়, গত এক মাস পূর্বে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ও শিক্ষকদের সমন্বয়ে তৈরী প্রশ্নপত্র দিয়ে বিদ্যালয় গুলোতে শ্রেণি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। চলতি মাসের ২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলোতে প্রথম সাময়িক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

লক্ষ করা গেছে ৩য় শ্রেণি, ৪র্থ শ্রেণি ও ৫ম শ্রেণির চলতি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র গত মাসের শ্রেণি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সাথে প্রায় ৯৫ ভাগ মিল রাখা হয়েছে।

এতে করে সচেতন মহল ও অভিভাবকদের মধ্যে একই রকমের প্রশ্নপত্রের জন্য হতাশার সৃষ্টি হয়েছে। তারা মনে করছেন, এতে করে শিক্ষার্থীরা পড়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে।

ছাত্র-ছাত্রীরদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, গত মাসের শ্রেণি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র অনুযায়ী প্রথম সাময়িক পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের বেশি বেশি পড়ার জন্য শিক্ষকরা পরামর্শ দিয়েছেন। আর তাতেই পরীক্ষায় ৯৫ ভাগ কমন পরেছে বলে জানান শিক্ষার্থীরা।

অপর একটি সূত্র জানায়, গত সাত বছর বিদ্যালয় গুলোতে গ্যালাক্সী পাবলিকেশন নামে গাইডটি শিক্ষার্থীরা অনুসরণ করে আসছিল। ২০১৮ সালের প্রথম সাময়িক পরীক্ষায় ওই গাইড থেকে কোন প্রশ্ন কমন না পরায় পরীক্ষা শেষে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের আদিল ব্রাদার্স নামে গাইড কিনতে বলেন। এতে করে বছরে শিক্ষার্থীদের গাইড কিনতে দুইবার অর্থ ব্যয় করতে হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক নেতা জানান, প্রায় ১০ লাখ টাকার রফাদফায় গ্যালাক্সী গাইড বাদ দিয়ে আদিল গাইডের (গাইড ও টেষ্ট পেপার) সাথে চুক্তি হয়। তখন থেকে এ পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা সহায়ক বই হিসেবে আদিলের (গাইড) কাছে জিম্মী হয়ে পরেছে শিক্ষার্থীরা।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোছা. জান্নাতুল ফেরদৌসের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সহকারী শিক্ষা অফিসারগন ও শিক্ষকদের সমন্বয়ে পরীক্ষার কমিটি গঠন করার মধ্যে দিয়ে প্রশ্নপত্র তৈরি করা হয়েছে।

শ্রেণি পরীক্ষা প্রশ্নপত্রের সাথে চলতি প্রথম সাময়িক পরীক্ষার প্রশ্নপত্রের সাথে মিল থাকার বিষয়ে অবগত নই। তবে এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। গাইড বইয়ের বিষয়ে তিনি বলেন, এখানে আমার দায়িত্ব গ্রহনের পূর্বে এমনটা হয়ে থাকতে পারে তবে বিষয়টি আমার জানা নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here