গজারিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় গুলিবিদ্ধ যুবকের ঢামেকে মৃত্যু

সব মানুষের সৃজন প্রয়াসী অনলাইন পোর্টাল:

শুক্রবার, ১৭ মে ২০১৯, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

arman-skal-5cde5ba54c918

গজারিয়া উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের ইসমানীরচর এলাকায় গত সোমবার প্রতিপক্ষের আক্রমণে গুলিবিদ্ধ আরমান হোসেন (২২) বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

গজারিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক মো. হাফিজুর রহমান শুক্রবার জানান, আগের করা মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপান্তর করা হবে।

আরমানের চাচা সাবেক ইউপি সদস্য আলী হোসেন মুফতী সমকালকে বলেন, আনুষাঙ্গিক কাজ শেষে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে বাদ জুমা আরমানের লাশ দাফন করা হবে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় একটি শিপ ইয়ার্ডের ভাঙারি ব্যবসার হিস্যা ও এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

সম্প্রতি স্থানীয় আতাউর গ্রুপের লোকজন ইসমানীরচর এলাকার জহিরুল ইসলাম ফরাজীর কাছে দাবি করে। চাঁদা না পেয়ে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাংচুর করে তারা।

চাঁদাবাজির মামলার কারণে আতাউর গ্রুপের লোকজন এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেলে তাদের প্রতিপক্ষ হারুন-ইব্রাহিম গ্রুপ শিপ ইয়ার্ডের ব্যবসা ও স্থানীয় আধিপত্য করায়াত্ব করে।

গত সপ্তাহে আতাউর গ্রুপের লোকজন আদালত থেকে জামিন নিয়ে এলাকায় ফিরলে উত্তেজনা দেখা দেয়। সোমবার সকালে হারুন-ইব্রাহিম গ্রুপের লোকজন আতাউর গ্রুপের কয়েকজনের বাড়িতে হামলা চালায়।

এ সময় জসীমউদ্দিন মিয়ার ছেলে আরমান ডান হাতে ও বুকে গুলিবিদ্ধ হয়। উদ্ধার করে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গজারিয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক হাফিজুর রহমান প্রত্যক্ষদর্শীরদের বরাত দিয়ে বলেন, হামলায় অংশগ্রহনকারী কমপক্ষে আট/দশ জনের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল।

সমকাল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here