মুন্সিগঞ্জে মাদকসেবীকে শাসানোয় হোটেল মালিককে খুন

সব মানুষের সৃজন প্রয়াসী অনলাইন পোর্টাল:

বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

20525451_1426427024106101_6148304395273762016_nমুন্সিগঞ্জ শহরে মাদক ছাড়তে শাসন করায় প্রকাশ্যে ছুরিকাঘাত করে শাহজালাল (৩৬) নামে এক হোটেল মালিককে হত্যা করেছে মাদকসেবী কবির (২২)।

গতকাল বুধবার সকাল ১০টার দিকে হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকায় এ হত্যাকা- ঘটে।

নিহত শাহজালাল বৌবাজার এলাকার উকিল উদ্দিন মোল্লার ছেলে এবং ঘাতক কবির একই এলাকার আনসার আলীর ছেলে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আশফাকুজ্জামান বলেন, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মাদকসেবী কবিরকে শাসন করেন শাহজালাল। এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এরই জের ধরে বুধবার সকালে শাহজালালের বুকে ছুরি দিয়ে আঘাত করে ওই মাদকসেবী।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কাসেম নামের একটি ছেলে কবিরকে ১০০ টাকা দেয় গাজা কিনতে। ওই কাসেমকে গাজা কিনেও দেয়নি এবং টাকাও ফেরত দেয়নি। বিষয়টি শাহজালাল জানতে পারে এবং কবিরকে এ বিষয়ে টাকা ফেরত দিতে বলে এবং এ সকল কাজ করতে নিষেধ করেন।

পরবর্তীতে মঙ্গলবার রাতে স্থানীয় কাউন্সিলরের ভাই আনোয়ার বিষয়টি রাতেই দুজনের মধ্যে মিটমাট করে দেন। তারই জের ধরে সকাল ১০টায় ছুরি নিয়ে এসেই শাহজালালকে ছুরিকাঘাত করে কবির।

ঘটনাস্থলে গেলে স্থানীয়রা জানান, কবির (২৮) ও কবিরের ভাই শরীফ (৩৭) এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা, ফেনসিডিল, গাজা বিক্রি করে আসছে। কিছুদিন আগেও পাশর্^বর্তী ঘরের এক নারীর কান ছিড়ে কানের দুল নিয়ে গেছে।

কবিরের মা আনুরি বেগমের বিরুদ্ধেও ছেলেদের এসকল কর্মকান্ডে উসকানী দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কবিরের পুরো পরিবারটিই এলাকায় বিষফোঁড়া হিসেবে সকলের কাছে চিহ্নিত হয়েছে।

শাহজালালের বাবা উকিল উদ্দিন মোল্লা জানান, আমার ছেলে শাহজাহাল আমার মেয়ের সংসার, আমাদের সংসার এবং তার নিজের সংসার এই হোটেল ব্যবসা করে চালিয়ে আসছিল।

এখন তিনটি সংসার কে চালাবে? শাহজালালের বিয়ে উপযুক্ত একটি মেয়ে এবং দুই ছেলে ও স্ত্রী, মা-বাবা ভাই ও বোন নির্বাক হয়ে গেছে। সকলের কান্নায় আকাশ বাতাশ ভারী হয়ে উঠছে। সুষ্ঠু বিচার চান শাহজালালের বাবা এবং এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী জানায়, বিষফোঁড়া কবিরের পরিবার এই এলাকায় বসবাস করলে এ ধরনের ঘটনা আরো ঘটতে থাকবে। চুন খসতেই মামাতো ভাই, হানিফা, আরিফ, আক্তার ও সেন্টুরা ঝাঁপিয়ে পড়ে তাদের উপর।

তাই এই পরিবারটি যাতে এই এলাকায় না থাকতে পারে তার ব্যবস্থা করার জন্য জোর দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

গুরুতর আহতাবস্থায় শাহজালালকে উদ্ধার করে প্রথমে মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান তিনি।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত কবির পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান পুলিশের ঊর্ধ্বতন এই কর্মকর্তা।

শাহজালালের স্বজনরা জানিয়েছেন, এ হত্যাকা-ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here