মিরকাদিমে দুইটি সড়কের কাজের উদ্বোধন করলেন মেয়র শাহীন

সব মানুষের সৃজন প্রয়াসী অনলাইন পোর্টাল:

শুক্রবার,১৪ জুন ২০১৯, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

নাজির হোসেনঃ

62628879_1048187878705465_6803868507768356864_nমিরকাদিম পৌরসভার দুটি সড়কের কাজের উদ্বোধন করেছেন পৌরমেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন। আজ ১৩জুন বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে মিরাপাড়া-মস্তানবাজার ও দক্ষিণ রামগোপালপুর সড়ক দুটির মাটি কেটে আনুষ্ঠানিক ভাবে মেয়র কাজের উদ্বোধন করেন। পৌরসভা সুত্রে জানা যায়, পৌরসভার দুই নাম্বার ওয়ার্ডের মিড়াপাড়া গোরস্থান মোড় এলাকা থেকে শুরু করে সাত নাম্বার ওয়ার্ডের মাজার পর্যন্ত ৪৮০মিটার আরসিসি সড়কের কাজ করা হবে।

এর জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১ কোটি ৩২ লাখ ৩৩ হাজার ৯২০ টাকা। এক নাম্বার ওয়ার্ডের জনপ্রিয় কমিউনিটি সেন্টার থেকে রামগোপাল পুর এলাকার শাহাবুদ্দিন মেম্বারের বাড়ি পর্যন্ত ৫৬৬ মিটার রোড সাইড ব্রিক নালা(ড্রেন) সহ ৫৭০ মিটার সড়কের কাজ হবে। যার ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় পৌণে তিন কোটি টাকা।

রাস্তা দুটি সর্বচ্চো ২০ফুট চওড়া করা হবে। দুপুর ১২টার দিকে পৌর মেয়র শহিদুল ইসলাম মিরাপাড়া-মস্তানবাজার ও দুপুর দেড়টার দিকে দক্ষিণ রামগোপালপুর সড়কটি কাজ ফিতা ও পায়না উড়িয়ে উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি পৌরসভার বিভিন্ন এলাকার সড়ক সহ যেসব নাগরিক সমস্যা রয়েছে, তা পর্যায়ক্রমে সমাধানের আশ্বাস দেন। সড়কের কাজের উদ্বোধন হওয়ায় স্বস্থির নিশ্বাস ফেলছেন স্থানীয় বাসিন্দা ও যানবাহন চালকরা।

স্থানীয়রা জানান, সড়ক দুটি দিয়ে চলতে গিয়ে খুব ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। ব্যবসায়-বানিজ্যে ব্যপক ক্ষতি হয়েছে। একবার বাড়ির ভিতর ঢুকলে সড়কে বেড়–তে ইচ্ছে করত না। বাড়ির বাহিরে থাকলে সড়কের দুর্দশার কারনে বাড়ি ফিরতে ইচ্ছে করত না। প্রতিদিন যানবাহন উল্টে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটত।কি পরিমান বিরম্ভনায় পড়তে হয়েছে, আমরা যারা এ পথে ব্যবহার করেছি, শুধু তারাই ভালো জানি। তাঁরা জানান, সড়কের নির্মান কাজ শুরু হওয়ায় স্থানীয়দের মধ্যে স্বস্থি ফিরে এসেছে।

মিরকাদিম পৌর মেয়র শহিদুল ইসলাম বলেন, সড়ক দুটির কারণে আমার পৌরবাসী কতটুকু ভোগান্তিতে ছিলো তা আমি ওই পথে যাতায়ত করতে গিয়ে দেখেছি। জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য মিরাপাড়া-মস্তানবাজার সড়কের মধ্যে নালা তৈরি করেছি। সড়কের মধ্যে বৈদ্যুতি খুটি থাকার কারনে সড়কের কাজ শুরু করতে বিলম্ব হয়েছে।

সড়কের এক প্রান্ত দিয়ে খুটি অপসারণের কাজ চলছে, অন্য প্রান্ত দিয়ে চলছে নির্মান কাজ। আশাকরি আগামী এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে সড়ক দুইটি নির্মান কাজ শেষ হয়ে যাবে। তিনি আরো বলেন, পৌর এলাকায় সড়কের কাজের জন্য ২০ কোটি টাকা বরাদ্ধ রয়েছে। সড়ক সহ পৌরসভার সকল নাগরিক সমস্যা সমাধানে কাজ করা হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ৪ নাম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মজিদ, ৬নাম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবজাল হোসেন ,৭ নাম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আজমান হোসেন,৯ নাম্বার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সোহেল মনি, ১,২ ও ৩ নাম্বার ওয়ার্ড সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর নুরজাহান শিল্পীসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here