উইকিপিডিয়ায় নিবন্ধ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী মুন্সিগঞ্জের তৃপ্তিকে সুইডিশ রাষ্ট্রদূতের সম্মাননা

সব মানুষের সৃজন প্রয়াসী অনলাইন পোর্টাল:

বৃহস্পতিবার, ২৮ জুন ২০১৯, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

______ __________ ___________ __________ ____ __________ ______________ঢাকায় অনুষ্ঠিত উন্মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ায় নারীদের অংশগ্রহণ ও নারী বিষয়ক তথ্য বৃদ্ধিতে আয়োজিত উইকিগ্যাপ শীর্ষক ক্যাম্পেইনের সমাপনী অনুষ্ঠানে মুন্সিগঞ্জের মেয়ে তাসমিন আক্তার তৃপ্তিকে সেরা উইকিপিডিয়া অবদনাকরীদের একজন হিসেবে সম্মাননা প্রদান করেন সুইডিশ রাষ্ট্রদূত সার্লোট্টা স্লাইটার।

এর আগে বাংলাদেশে উইকিপিডিয়া নিয়ে কাজ করা সংস্থা উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ ও সুইডিশ দূতাবাসের যৌথ উদ্যোগে বাংলা উইকিপিডিয়াতে নারী বিষয়ক তথ্য সমৃদ্ধ করতে ১৫ দিনব্যাপী একটি নিবন্ধ লেখার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

গত ২৩ জুন রোববার ঢাকায় নিযুক্ত সুইডিশ রাষ্ট্রদূত সার্লোট্টা স্লাইটার তাঁর বাসভবনে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ, অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থা ও সাংবাদিক প্রতিনিধিদের নিয়ে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে এ সম্মাননা প্রদান করেন।

______ ______ ______ ______ __________ ___________ __________ ___ ____ ___ _____ _____অনুষ্ঠানে উইকিগ্যাপ ক্যাম্পেইনে অংশ নেওয়া সেরা ১০ জনকে পুরস্কৃত করা হয়। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন দূতাবাসের যোগাযোগ কর্মকর্তা আলীম বারী এবং সুইডিশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে আরও উপস্থিত ছিলেন রাজনৈতিক ও বাণিজ্য সম্পর্কীয় সেকেন্ড সেক্রেটারি ইলভা ফেস্টিন ও গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও জেন্ডার ইকুয়্যালিটি সম্পর্কীয় সেকেন্ড সেক্রেটারি ইলভা সাস্ট্রেন্ড।

তাসমিন আক্তার তৃপ্তি উইকিগ্যাপ’ ক্যাম্পেইনে অংশ নিয়ে বাংলা উইকিপিডিয়াতে বাংলাদেশী, সুইডিশ ও ভারতীয় ৩০ জন কীর্তিমান নারীর জীবন ও কর্মের ওপর আর্টিকেল লিখে এ পুরস্কার গ্রহণ করেন। তৃপ্তির লেখা নিবন্ধগুলোর মধ্যে রয়েছে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম দ্রুততম মানবী শামীম আরা টলি,

বাংলাদেশের প্রথম নারী রাষ্ট্রদূত মাহমুদা হক চৌধুরী, প্রথম বাঙালি মুসলমান গদ্য লেখিকা তাহেরন নেসা, বাংলাদেশের প্রথম নারী জেলা প্রশাসক রাজিয়া বেগম, প্রথম নারী সচিব জাকিয়া আক্তার চৌধুরী, বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমীর প্রথম নারী প্যারেড কমান্ডার এলিজা শারমিন, ভারতের প্রথম নারী বিচারপতি আন্না চান্দী,

নারী শ্রমিক আন্দোলনের পথ প্রদর্শক অনুসূয়া সারাভাই, বর্ণবাদ বিরোধী আমেরিকান আন্দোলনকর্মী রোজা পার্কস, সুইডিশ লেখক ফ্রেডরিকা ব্রেমার ও সুইডিশ কল্পকাহিনী লেখক ও চিত্রনাট্যকার অস্ট্রিড লিনগ্রেনসহ প্রভৃতি।

অনুষ্ঠানে অভিজ্ঞাতা বর্ণনা করে তাসমিন আক্তার তৃপ্তি বলেন, সামাজিক ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের অনেক অবদান থাকলেও সেগুলো অনেক সময়ই আলোচিত হয় না।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ায় উল্লেখযোগ্য নারীদের জীবনী যুক্ত করে অন্যদেরকে উৎস প্রদান ও তাঁদের কর্ম মানুষকে জানানোর তাগিদে আমি এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছি। নারীদের কার্যক্রমে নারীদেরকেই এগিয়ে আসতে হবে।

______ ______ ______ইডেন কলেজের গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী তাসমিন আক্তার তৃপ্তি মুন্সিগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার হাসাইল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মাহবুব আলম দেওয়ান (সেন্টু)। তিনি যাত্রাবাড়ি আইডিয়াল স্কুল থেকে ২০১১ সালে এসএসসি ও মতিঝিল আইডিয়াল কলেজ থেকে ২০১৩ সালে এইসএসসি পাশ করেন।

সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত সার্লোট্টা স্লাইটার উপস্থিত উইকিপিডিয়ান ও সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ২০১৮ সালে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের সুইডিশ চ্যাপ্টার,

উইকিমিডিয়া সুইডেন ও সুইডেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যৌথভাবে উইকিপিডিয়াতে নারী বিষয় নিবন্ধ বৃদ্ধি ও উইকিপিডিয়ায় নারীদের অবদানকে উৎসাহ দিতে উইকিগ্যাপ নামের এই ক্যাম্পেইন শুরু করে।

______ __________ ___________ __________ ____ ______ ______ ______জেন্ডার-ইকুয়্যাল ইন্টারনেট তৈরির লক্ষ্যে আয়োজিত এই ক্যাম্পেইন পরবর্তীতে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সুইডিশ মিশন ও উইকিপিডিয়া নিয়ে কাজ করা স্থানীয় উইকিমিডিয়া চ্যাপ্টারের সাথে মিলে স্থানীয় ভাষায় বিস্তার লাভ করে।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে সুইডেন নারীবান্ধব পররাষ্ট্রনীতি গ্রহণ করেছে। ইন্টারনেটে তথা উইকিপিডিয়ায় কনটেন্ট গ্যাপ কমাতে তাঁরা ভবিষ্যতে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশসহ অন্যান্য সমমনা স্থানীয় সংস্থার সাথে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করে।

62363273_2050265475282497_4206399130416709632_nঅনুষ্ঠানে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক নাহিদ সুলতান, কোষাধ্যক্ষ তানভির মোর্শেদ, সম্প্রদায় পরিচালক আফিফা আফরিন ও বাংলা উইকিপিডিয়ার প্রশাসক ইব্রাহিম হোসেন মেরাজ।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here