শ্রীনগরে জনতা ব্যাংক ভাগ্যকুল শাখার বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পায়নি তদন্ত কমিটি !

সব মানুষের সৃজন প্রয়াসী অনলাইন পোর্টাল:

বুধবার, ৩১ জুলাই ২০১৯, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

নাজির হোসেন ও তুষার আহমেদ:

শ্রীনগর উপজেলার জনতা ব্যাংক ভাগ্যকুল শাখার ম্যানেজার, সহকারী ম্যানেজার সহ এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে অনিয়ম ও ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগের কোন সত্যতাই পায়নি জনতা ব্যাংক লিমিটেড প্রধান কার্যালয়ের দুই সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত টিম।

গত ২৮ জুলাই রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একটি তদন্ত টিম শ্রীনগর উপজেলা জনতা ব্যাংক ভাগ্যকুল শাখায় এক অভিযোগের বিষয়ে খোঁজ খবর নিতে ব্যাংকে আসে।

সারাদিন বিভিন্ন পযার্য়ের গ্রাহকদের সঙ্গে কথা বলেন। কিন্তু ঐ তদন্ত টিমের কর্তারা অনিয়ম ও ঘুষ বাণিজ্যের কোন সত্যতা খোজে পায়ননি বলে সূত্র মতে জানা গেছে।

এদিকে ঐ দিনই জাহানারা পারভীন নামের যে গ্রাহক ম্যানেজার, সহকারী ম্যানেজার ও এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে অনিয়ম ও ঘুষ বাণিজ্যের যে অভিযোগ করে ছিলেন তিনি সেটি লিখিত আবেদনের মাধ্যমে ব্যবস্থাপনা পরিচালক, জনতা ব্যাংক লিমিটেড প্রধান কার্যালয় -ঢাকা’র বরাবর লিখিত আবেদনের মাধ্যমে প্রতাহার করে নেন বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গত ১ জুলাই শ্রীনগর জনতা ব্যাংক ভাগ্যকুল শাখার অডিট করতে আসে বিভাগীয় (দক্ষিণ) কার্যালয়ের এজিএম কামাল উদ্দিনসহ একটি টিম।

আর এই অডিট কর্মকতার কাছে এখানকার সঞ্চয় হিসাবের (জেবিডিএস) এর জাহানারা পারভীন নামের এক গ্রাহক উক্ত ব্যাংকের ম্যানেজার মোঃ মাসুদ, সহকারী ম্যানেজার মুনসুর ও কর্মচারী মোবারকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগ লিখিত পত্রের মাধ্যমে দাখিল করেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৮ জুলাই জনতা ব্যাংক কেন্দ্রীয় কার্যালয় এই অভিযোগ তদন্তে ২ সদস্য বিশিষ্ট একটি টিম শ্রীনগর জনতা ব্যাংক ভাগ্যকুল শাখায় পাঠান। এদিন ওই তদন্ত টিম এ অভিযোগের বিষয় খোঁজ খবর নিলে তার কোনো সত্যতাই পায়নি।

এদিকে অভিযোগ প্রত্যাহারের বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করেছেন অভিযোগকারী ওই ব্যাংকের গ্রাহক জাহানারা পারভীন।

তিনি বলেন, (জেবিডিএস) হিসাব ভাঙ্গাতে গেলে শাখা ব্যবস্থাপকের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝির কারণে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলাম। ভুল বোঝাবুঝির বিষয়টি ঞ্জাত হওয়ার পর অভিযোগটি প্রত্যাহার করে নিয়েছি।

অপরদিকে জনতা ব্যাংক ভাগ্যকুল শাখার ম্যানেজার মোঃ মাসুদ এ ব্যাপারে বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে যে অনিয়ম ও ঘুষ বানিজ্যের অভিযোগ করা হয়েছিলো পুরোটাই মিথ্যা ষড়যন্তমূলক ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত ছিলো।

যে মহিলা গ্রাহক অভিযোগটি করেছিলেন তিনি তার ভুল বুঝতে পেরে অভিযোগটি প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here