রাজশাহীতে পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে জখম করা সেই দৃর্বৃকত্তকে আটক করেছে পুলিশ

৪ঠা সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

মাসুদ রানা রাব্বানী :

police and atok-04.09.2019রাজশাহীতে পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে জখম করা সেই দৃর্বৃত্ত মোঃ রফিকুল ইসলাম(৩৬)কে আটক করেছে পুলিশ। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র ও অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গতকাল মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে

৪টার দিকে রাজপাড়া থানাধীন পার্কগেইটে অবস্থিত মহানগর ট্রাফিক কার্যালয়ের সামনে পুলিশ সদস্য কনস্টবল শ্রী জয় কুমারের উপরে অতর্কিত এক ব্যক্তি অস্ত্র হাতে আক্রমণ চালিয়ে মাথায় ও হাতে রক্তাক্ত জখম করে।

তাৎক্ষণিক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পাশাপাশি আক্রমণকারীকে ধরতে সারা শহর জুড়ে সাড়াশি অভিযান চালানো হয়। অভিযানের এক পর্যায়ে চন্দ্রিমা থানা, রাজপাড়া থানা, ডিবি ও ট্রাফিকের যৌথ অভিযানে রাত

সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর চন্দ্রিমা থানাধিন ছোট বন গ্রাম এলাকার নিজ বসত বাড়ী হতে দৃর্বৃত্ত মোঃ রফিকুল ইসলামকে আটক করা হয়। সে ওই এলাকার মোঃ আব্দুর রশীদের ছেলে।

জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায় , গত মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে একজন ট্রাফিক সার্জেন্ট লক্ষীপুর মোড়ে ডিউটি করার সময় তার চিকন চাকার অটোরিক্সা আটকায়। চিকন চাকার অটোরিক্সা নগরীতে চালানো নিষিদ্ধ হওয়ায় অটোরিক্সাটি সার্জেন্ট জব্দ করে

ট্রাফিক অফিসে প্রেরণ করেন। এতে সে প্রচন্ড রাগের বশবর্তী হয়ে ভাংড়ী দোকান থেকে একটি রড সংগ্রহ করে সে। পরে ট্রাফিক অফিসের সামনে যেয়ে অপেক্ষা করতে থাকে।

এক পর্যায়ে ট্রাফিক অফিস হতে হেলমেট হাতে কনস্টবল শ্রী জয় কুমারকে বের হতেই কনস্টবল জয়কে সে ট্রাফিকের লোক মনে করে হাতে থাকা রড দিয়ে তার মাথায় ও হাতে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। এ সময় কনস্টবল তার হাতে থাকা হেলমেট

দিয়ে তাকে নিবৃত্ত করার চেষ্টা করে। এ সময় পাশে থাকা ট্রাফিক পুলিশের সদস্য ও পথচারীরা ধরার চেষ্টা করলে সে হেলমেটটি কেড়ে নিয়ে দৌড়ি গিয়ে একটি অটোতে করে পালিয়ে যায়।

ট্রাফিক পুলিশের কার্যালয়ে আটককৃত রিক্সার সাথে থাকা তার তথ্য থেকে তার বসত বাড়ী থেকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে সে পুরো ঘটনা স্বীকার করে। পরে তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী রেলওয়ে অফিসার্স মেসের সামনের ড্রেন হতে আঘাতের কাজে ব্যবহৃত লোহার রড এবং ব্যবহৃত গেঞ্জি, প্যান্ট ও পুলিশের ছিনতাইকৃত হেলমেটটি উদ্ধার করা হয় ।

এ বিষয়ে রাজপাড়া থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। মামলাটি তদন্ত অব্যহত রয়েছে বলেও জানান আরএমপি’র মূখপাত্র।
প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার দুপুরে ট্রাফিক চেক পোস্টে অন্য পুলিশ সদস্যদের সাথে ডিউটি করছিলেন কনস্টেবল জয় কুমার। এ সময়

একটি পাশে অবস্থিত ট্রাফিক বিভাগের অফিসে কাজ শেষে ফিরে আসার সময় ওই অফিসের গেটের সামনে তাকে পেছন থেকে দা দিয়ে কোপ দিয়ে পালিয়ে যায় রফিকুল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here