সিরাজদিখানে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৭টি দোকানে হামলা: মালামাল লুটের অভিযোগ

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

মোহাম্মদ রোমান হাওলাদার:

সৈকত (15)সিরাজদিখানে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৭টি দোকানে হামলা ও দোকানে থাকা মালামাল লুটের ঘটনা ঘটেছে।

গতকাল শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা অনুমান ৭ টার দিকে উপজেলার কোলা ইউনিয়নের ছাতিয়ানতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যা অনুমান ৬টার দিকে ছাতিয়ানতলী গ্রামের মোঃ সৈকত (১৫) ও সোন্ধাদিয়া গ্রামের সাব্বির (১৭) এর সাথে তুচ্ছ বিষয় নিয়া গালাগালির এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে সাব্বির সৈকতকে হুমকি দিয়ে চলে যায়।

সাব্বির ১০/১২ জন লোক নিয়ে সৈকতকে মারার জন্য ছাতিয়ানতলী স্কুল সংলগ্ন বাজারে আসে। বাজারের লোকজন তাদের থামানোর চেষ্টা করলে সৈকত এর চাচা বাদল মল্লিক তাদের মারপিটে আহত হলে বাজারের দোকানদাররা তাদের ৪ জনকে আটকে রেখে অভিভাবকদের খবর দেয়। অভিভাবকরা এসে তাদেরকে ছাড়িয়ে নিয়ে বাজারের দোকানদারসহ স্থানীয় লোকজন বসে বিষয়টি মিমাংসা করে দেন। সন্ধ্যা অনুমান ৭টার দিকে শ্রীনগর উপজেলার সিংপাড়া এলাকার দিদার হোসেন এর পুত্র মামুন ও স্বাধীন এর পুত্র অব্দুল্লাহর নেতৃত্বে সোহাগ, সাব্বির, তপন, মুরাদ, জাহিদ ওরফে রেন্ডিসহ ৭০/৮০ জনের একটি সংগবদ্ধ দল দেশীয় অস্ত্রস্বস্ত্র নিয়ে ছাতিয়ানতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বাজারের ৭টি দোকান ১ টি গ্যারেজে ব্যপক ভাংচুর চালায় এবং দোকানের মালামালসহ গ্যারেজের সামনে থাকা পিকআপ থেকে ২টি ব্যাটারি লুট করে নিয়ে যায়।

ভাংচুর ও লুটপাটে ৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে বাজারের দোকানদাররা অভিযোগ করেন। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক রনি চৌধূরী বলেন, আমি ঘটনাটি শুনে তাৎক্ষনিক থানায় জানিয়েছি। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসেছিল। এব্যাপারে সিরাজদিখান থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফরিদ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাটি শুনে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here