রজত রেখায় সংবাদ প্রকাশের পর হতদরিদ্র কৃষকের পাশে দাঁড়ালেন ইউএনও ও র‌্যাব সদস্য

মোহাম্মদ রোমান হাওলাদার: দেশের এই ক্রান্তিকালে হতদরিদ্র কৃষক আওলাদ হোসেনকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও র‌্যাব সদস্য। ‘মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য’ মানুষ হয়ে অন্য অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানো এ কথাটিই প্রমান করে। তাদের দেখে বোঝা যায় মানবতা এখনো মরে নি।

গত শনিবার ১৮ এপ্রিল ‘সিরাজদিখানে সুবিধাবঞ্চিত একটি পরিবার, পাশে নেই কেউ’ শিরোনামে দৈনিক রজত রেখায় সংবাদ প্রকাশের পর হতদরিদ্র কৃষক আওলাদ হোসেনের বাড়ীতে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। আওলাদ হোসেন মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের

পূর্ব রাজদিয়া গ্রামের মৃত আকরাম শেখের ছেলে। গত শনিবার দুপুরে সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশফিকুন নাহারের নির্দেশে ১০ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি পেঁয়াজ, আধা লিটার তৈল ও একটি সাবানসহ নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী ওই হতদরিদ্র কৃষকের বাড়ীতে পৌঁছে দেয়া হয়। এছাড়া র‌্যাপিড

একশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) হেডকোয়ার্টারস এর অতিরিক্ত মহাপরিচালকের পারসোনাল এসিস্টেন্ট মো: শরিফুল ইসলাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজবুকে সংবাদটি দেখে কৃষক আওলাদ হোসেন পাশে মানবতার হাত বাড়িয়ে দাঁড়িয়েছেন। তিনি তার ঘনিষ্ট এক বন্ধুর মাধ্যমে গত রবিবার সকালে ৫ কেজি চাল, ৫ কেজি আটা, ১

কেজি ডাল ও ১ কেজি তৈল আওলাদ হোসেনের বাড়ীতে পৌঁছে দিয়েছেন। অন্য দিকে বিক্রমপুর কেবি ডিগ্রি কলেজের এক শিক্ষার্থী আওলাদ হোসেনের বাড়ীতে স্ব-শরীরে হাজির হয়ে আর্থিক সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন। খাদ্য সামগ্রী পেয়ে কৃষক আওলাদ হোসেন কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, দুনিয়াতে এখনো ভালো মানুষ

আছে। তা না হলে দুনিয়া টিকতো না। যারা আমাকে চাল ডাল দিয়ে সাহায্য করলেন তারা নিসন্দেহে ভালো মনের মানুষ। আমি এই সাংবাদিকের জন্য দোয়া করি। তিনি আমার কথা তুলে না ধরলে আমাকে কেউ সাহায্য করতো না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here