টঙ্গিবাড়ী গোপীনপুরে প্রতি পক্ষের দখলের ভয়ে রাত জেগে জমি পাহাড়া

received_408666620050291-620x330টঙ্গিবাড়ী   উপজেলার          গোপীনপুরে  এলাকায় প্রতিপক্ষের দখলের ভয়ে রাত জেগে জমি পাহাড়া দিচ্ছেন জমির প্রকৃত দখলদার শফিকুল ইসলাম টেন্টু।

জানাগেছে,টঙ্গিবাড়ী উপজেলার গোপিনপুর এলাকায় জোড় করে জমি দখল করে দোকানঘর নির্মান নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করেছে।

যে কোন মুহুর্তে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। স্থাণীয় বালিগাওঁ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মামুন মেম্বার এ দোকানঘর নির্মাণ করছেন বলে প্রকৃত জমির মালিক দাবিদার শফিকুল ইসলাম টেন্টু জানিয়েছেন।

এ  ব্যাপারে ইতিপূর্বে টেন্টু গংরা থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় ওই স্থানে দোকানঘর নির্মাণ বন্ধ করে দেয়। তবে এতে থেমে যায়নি মামুন মেম্বার।

সে অন্যত্র দোকানঘরের টিনের চাল ও বেড়া নির্মাণ করছেন। রাতের অাধারে যে কোন মুহুর্তে সেই টিনের বেড়া ও চাল এনে নির্মাণাধীন ঘরে লাগিয়ে দোকান নির্মাণ সম্পন্ন করার পায়তারা চলছে। তাই বাধ্য হয়ে অপরপক্ষের শফিকুল ইসলাম টেন্টু রাত জেগে নির্মানাধীন ওই দোকানঘর এলাকা পাহাড়া দিচ্ছেন।

এতে ওই স্থানে দু-গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন মুহুর্তে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হতে পারে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলায় গোপিনপুর এলাকায় রাস্তার পাশে টিন, কাঠ দিয়ে দোকান ঘর নির্মাণ করছেন মামুন মেম্বার। ইতিমধ্যে দোকান ঘরটির খাম পুতে কাঠ দিয়ে টিনের চালের কাঠামো নির্মাণ করা হয়েছে। পুলিশি বাধায় প্রত্যক্ষলোকে কাজ বন্ধ হয়ে গেলেও নির্মাণাধীন দোকানের পাশের স্থানের একটি গোডাউনের আড়ালে মামুন মেম্বার টিন দিয়ে দোকান ঘরের চাল ও বেড়া নির্মাণ করছেন।

এ ব্যাপারে ওই জমির প্রকৃত মালিক দাবিদার শফিকুল ইসলাম টেন্টু জানান, এই জমি আমি দির্ঘদিন যাবৎ ক্রয় করে ভোগদখল করতাছি। কিন্তু মামুন মেম্বার কিছুদিন আগে আমার জমির পাশের জমি কিনে এখোন সে ক্ষমতার জোড়ে আমার রাস্তার পাশের জমি দখল করতে চায়। থানায় অভিযোগর পর কাজ বন্ধ করে দেওয়ায় এখোন সে রাতের আধারে দখলের পায়তারা করছে। বাধ্য হয়ে রাত জেগে আমি পাহাড়া দিচ্ছি  ।

এ ব্যাপারে মামুন মেম্বার এর সাথে যোগাযোগ করা হলে সে জানায়,এই জমি আমি প্রকৃত মালিকদের কাছ হতে কিনেছি আমি আমার কিনা জমিতে দোকান ঘর নির্মাণ করছি।

টঙ্গিবাড়ী থানা ওসি হারুন -অর- রশিদ আমাদের কে  জানান, শান্তি শৃঙ্লা রক্ষায় দু-পক্ষকেই আপাতত ওখানে দোকানঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

কেউ শান্তি শৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে তার বিরুদ্ধে আইন গত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here