গজারিয়ায় ভূমিহীনরা জমি পেলেও দখল পাননি

pic-13-07-2020অনাহার, অর্ধাহার ও রোদ বৃষ্টিতে ভিজেই জীবন যাপন করছে ষাটোর্ধ ৪টি পরিবারসহ দেড়শ পরিবার। দেড়শজন ভূমিহীন পরিবার ১০ বছর পূর্বে ভূমিহীন হিসেবে জায়গা পেলেও এখন পর্যন্ত সেই জায়গা দখল বুঝে পাননি। জমি দখলে না পাওয়ায় কেউই বাড়ি বা ঘরও উঠাতে পারেন নি।

খুবই মানবেতরভাবে জীবন যাপন করছে এদের অধিকাংশ মেঘনা বস্তিতে। বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের বিভিন্ন মৌজা ও খতিয়ানে এই জমি বরাদ্দ দেয়া হয়। সোমবার (১৩ জুলাই) বেলা ১১টার সময় বালুয়াকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে তাদের জমি দখলে পাওয়ার জন্য মানব বন্ধন করে।

তাদেরকে জমির দলিল দেয়া হলো কিন্তু কেন দখল দেয়া হলো না। ১০ বছর ধরে তারা এই জমির জন্য ইউনিয়ন পরিষদ, উপজেলা প্রশাসনে যোগাযোগ করেছেন। একেকটি পরিবারের কাছ থেকে জমি খারিজ করতে ২৫০০ থেকে ৭০০০ টাকা পর্যন্ত নেয়া হলেও কেউ জমি বুঝে পাননি।

এমনকি ভূমিহীনদের জায়গায়ও যেতে পারেন নি কেউ। ভূক্তভোগী তেতুইতলার মৃত আনোয়ার আলীর পুত্র ফজর আলী (৬৫), বড় রায়পাড়ার মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে সানা উল্লাহ (৬৭), মেঘনা ঘাটের বস্তির মৃত সাইজুদ্দিনের ছেলে জিন্নাত আলী (৬৪)। বর্তমানে বড় রায়পাড়া বসবাস করছেন তিনি।

ছোট রায়পাড়ার মৃত দুদ মিয়ার মেয়ে জবেদা (৬১)। এই চারজনকে বিগত ০৯-১১-২০১০ খ্রি. ভূমিহীন হিসেবে জমি বরাদ্দ দেয়া হয়। তারা অভিযোগ করে বলেন, এই জমি খারিজ করতে একেকজন থেকে ২৫০০ থেকে ৭০০০ টাকা পর্যন্ত নেয়া হয়েছে।

তৎকালিন সময়ের বালুয়াকান্দি ইউনিয়নের তহশিলদার আব্দুল কাদির তিনি বর্তমানে ভবেরচর ইউনিয়নের ভূমি অফিসে কর্মরত আছেন।

জিন্নাত আলী (৬৪) জানান, আমার ভূমিহীন হিসেবে পাওয়া জমির মিউটেশন করতে তার কাছ থেকে ৭০০০ টাকা চেয়েছেন আব্দুল কাদির।

কিন্তু এখন পর্যন্ত তার জায়গা বুঝে পাননি। দেড়শ পরিবারের কোন পরিবারই তাদের সম্পত্তি বুঝে পাননি এখন পর্যন্ত। বালুয়াকান্দি ইউনিয়ন পরিষদে এই বিষয়টি নিয়ে ১০ বছর যাবৎ দৌঁড়াচ্ছেন কিন্তু কোন সমাধান পাননি তারা।

এ বিষয়ে ১৩ জুলাই সোমবার সকাল ১১টার সময় বালুয়াকান্দি ইউনিয়ন পরিষদে ভূমিহীন সদস্যরা তাদের দেয়া ভূমি বুঝে দেয়ার দাবীতে মানব বন্ধন করেন।

এ বিষয়ে বালুয়াকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো: শহিদুজ্জামান জুয়েল জানান, দীর্ঘদিন যাবৎ এই দেড়শ পরিবার জমির বরাদ্দ পেলেও জমি বুঝে পান নি এখন পর্যন্ত।

উপজেলা ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় কিভাবে তাদের বরাদ্দকৃত জমি দখলে যেতে পারে সেজন্যই ইউনিয়ন পরিষদের ডেকেছিলাম। তাদের সাথে কথা হয়েছে এখন প্রশাসনের সহযোগিতায় কি করা যায় চেষ্টা করবো।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ভূমিহীনদের ভূমি বরাদ্দ দিচ্ছেন। যাদের ঘর নেই তাদের ঘর তৈরীরও ব্যবস্থা করছেন। তাদের জমি দখলে থাকলে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা নিয়ে ঘরের ব্যবস্থা করে দিতে পারলে তারা স্বাভাবিকভাবে জীবন যাপন করতে পারতো।

এ বিষয়ে গজারিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) এসএম ইমাম রাজী টুলুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিল না।এডিসি রেভিনিউ স্যারের সাথে কথা বলে ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র: গজারিয়া নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here