গজারিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গৃহবধূর মৃত্যুতে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ?

160153595_2864531577101412_5803302021988372451_nজুয়েল দেওয়ান:

গজারিয়ায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সুলতানা আক্তার (২৬) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। নিহত গৃহবধূ সুলতানা আক্তার টেঙ্গাচর ইউনিয়নের মধ্যে ভাটেরচর গ্রামের ওয়াজকুরুনী মোল্লার স্ত্রী ও চরবাউশিয়া বড়কান্দি গ্রামের মিছির আলীর মেয়ে বলে জানা গেছে।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে টেঙ্গাচর ইউনিয়নের মধ্যে ভাটেরচর গ্রামে মোল্লা বাড়িতে এঘটনা ঘটে।
নিহত গৃহবধূ সুলতানা আক্তারের স্বামী ওয়াজকুরুনী জানান, শুক্রবার দুপুরে তার স্ত্রী তার নিজ একতলা ভবনের পাশে গোসলখানায় গোসল করিতে গেলে বৈদ্যুতিক মোটর পাম্প বিদ্যুতায়িত হয়ে মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন।

এসময তার চাচাতো ভাইয়ের মেয়ে ফাহিমা (১৪) দেখে বাড়ির লোকজন খবর দিলে লোকজন এগিয়ে এসে তার স্ত্রী কে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

তিনি আরো জানান, ঘটনার সময় তিনি বাড়িতে ছিলেন না, দোকানে ছিলেন। তার মাও তার মেয়েকে নিয়ে একটি বিয়ের দাওয়াতে গিয়ে ছিলেন,

আর তার বাবা তাকে দোকানে খাবার দিতে এসেছেন। তার স্ত্রীর সাথে সম্পর্ক একেবারে স্বাভাবিক ছিল। শ্বশুরবাড়ির লোকজনের অভিযোগ একেবারেই ভিত্তিহীন বলে তিনা দাবী করেন।

এব্যাপারে নিহত গৃহবধূর চাচা নজরুল ইসলাম বলেন, গত ৪ বছর আগে পারিবারিক ভাবে একই উপজেলার মধ্য ভাটেরচর গ্রামের মফিজ মোল্লার ছেলে ওয়াজকুরুনী মোল্লার সাথে তার মেয়ের সুলতানের বিয়ে দেন তারা। তাদের সংসারে তিন বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্বামী ওয়াজকুরনী তার মেয়ের উপর নির্যাতন করতো। মারধরের ঘটনায় একাধিকবার ঘরোয়া সালিশ হয়েছে। তাদের মেয়েকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করে সেটি’কে অপমৃত্যু বলে চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে দাবি করেন তারা।

তারা অভিযোগ করে বলেন, ঘটনার সময় বাড়ি ফাঁকা ছিল এ সুযোগে ওয়াজকুরনী তার মেয়েকে হত্যা করেছে।
এ ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী ওয়াজকুরুনী মোল্লা কে আটক করেছে গজারিয়া থানা পুলিশ।

এবিষয়ে গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রইছ উদ্দিন জানান, নিহতের স্বজনদের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করার জন্য প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামীকে আটক করা হয়েছে। লাশ পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। ময়নাতদন্তের পরে বিস্তারিত জানা যাবে।
কপি নিষেধ..

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here