গজারিয়ায় প্রবাসীর বাড়িতে হামলা

গজারিয়ায় প্রবাসীর বাড়িতে হামলাগজারিয়ায় মালয়েশিয়া প্রবাসী রমজান মোল্লা’র বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট এবং বাড়িতে থাকা স্ত্রী ও বৃদ্ধ বাবা-মাকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদানের অভিযোগ উঠেছে হৃদয়ের বিরুদ্ধে।
গেলো বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নের জৈষ্ঠিতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত হৃদয় একই ইউনিয়নের পার্শ্ববর্তী হোগলাকান্দি গ্রামের মৃত রবিউল এর ছেলে সদ্য মালেশিয়া থেকে ফেরত।
এ ঘটনায় মালয়েশিয়া প্রবাসী রমজান মোল্লা’র স্ত্রী সুবর্না হৃদয় কে প্রধান আসামী করে ৮ জনের নাম অন্তর্ভুক্ত করে গজারিয়া থানায একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পরিপ্রেক্ষিতে ২ জন কে গ্রেফতার করে পুলিশ।
জানাগেছে বছর খানেক আগে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান হৃদয। সেখানে যাওয়ার কয়েক মাস একটি কোম্পানিতে বৈধভাবে কাজ করার পর সেখান থেকে পালিয়ে গিয়ে তিনি ওই দেশে অবৈধ হয়ে জীবনযাপন করেন। এরই মধ্যে ওই দেশে হৃদয় সন্ধান পায় একই ইউনিয়নের পার্শ্ববর্তী গ্রামে রমজান মিয়াকে।
পরে রমজান মিয়া সহযোগিতা করে হৃদয় কে অন্য একটি কোম্পানি তে কাজ করার সুযোগ করে দেন। এ ভাবে প্রায় ছয় মাস কাজ করার পর হৃদযকে মালয়েশিয়া পুলিশ গ্রেফতার করে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়।
বাংলাদেশে এসেই হৃদয় মালয়েশিয়া প্রবাসী রমজান মোল্লা’র বাড়িতে থাকা স্ত্রী ও বৃদ্ধ বাবা-মাকে জানান রমজান তার কাছ থেকে বাংলা ৫০হাজার টাকা নিয়েছে, তাকে বৈধ করে দেওয়ার কথা বলে। কিন্ত তাকে বৈধ করতে পারেনি বলে এক মাসের মধ্যে ৫০ হাজার টাকা ফেরত দিতে বলে তাদের শাসিয়ে দিয়ে যায়।
তবে হৃদয়ের দাবিকৃত ৫০ হাজার টাকা অস্বীকার করেছেন রমজান মোল্লা। এ ঘটনার জের ধরেই বৃহস্পতিবার বিকালে হৃদয়ের নেতৃত্ব একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মোটর সাইকেল যুগে জৈষ্ঠিতলা গ্রামে মালয়েশিয়া প্রবাসী রমজান মোল্লা’র বাড়ির ভিতর প্রবেশ করে হামলা করে।
এসময় সন্ত্রাসীদের ভয়ে বাড়ি থেকে রমজান মোল্লার পরিবারের লোকজন চলে গেলে এ সুযোগে সন্ত্রাসীরা রমজান মোল্লার বাবার মুদি দোকান ঘরের টিনার বেড়া কুপিয়ে ভিতরে ডুকে দোকানের ক্যাশে থাকা নগদ ২৬ হাজার টাকা নিয়ে য়ায়।
মামলার বাদী সুবর্ণা জানান, হৃদয়ের হাতে পিস্তল ছিলো, বাকীদের হাতে দা, চাইনিজ কুড়াল ছিলো। টাকা না দিলে তাকে এবং তার শ্বশুর- শ্বাশুড়িকে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করে চলে যায়। পরে আমি ওই দিন গজারিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করতে গেলে হোগলাকান্দি গ্রাম অত্রিুম করার সময় হৃদয় ও তার সন্ত্রাসী ভাড়াটিয়া গুন্ডাবাহিনী ফের আমাকে পথ রোধ করে মামলা না করার জন্য হুমকি প্রদান করে।
এবিষয়ে জানতে অভিযুক্ত হৃদয়ের সাথে যোগাযোগ করতে একাধিক বার ফোন দিলেও তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়,পরে তাঁর বাড়িতে গেলে, তার চাচা সাবেক ইউপি সদস্য আমিরুল ইসলাম জানান, হৃদয়ের সাথে বাবুল মোল্লার মালেয়শিয়া প্রবাসী ছেলে রমজানের সাথে আর্থিক লেনাদেনা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। ওই
বিরোধকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। ঘটনার সমাধানে আমরা পুলিশকে সহযোগিতা করছি।
এ বিষয়ে গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রইছ উদ্দীন জানান, এঘটনায় দুজন কে আটক করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here