রাজশাহীতে চিকিৎসক ডা. লুৎফরের আত্মহত্যা

মাসুদ রানা রাব্বানী:

রাজশাহীতে অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেয়ে এক চিকিৎসক আত্মহত্যা করেছেন। ওই চিকিৎসকের নাম ডা. লুৎফর রহমান (২৭)। তিনি জেলার দুর্গাপুর উপজেলার ভবানিপুর এলাকার বাসিন্দা।

সোমবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। তার মরদেহ রামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রামেক হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস।
রামেক হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ডা. ডা. লুৎফর রহমান রাজশাহী মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ৫৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে হেপাটোলজি বিষয়ে এমডি করছিলেন।

রামেক হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এ.এস.আই রুহুল আমিন বলেন, ভোর ৪টার দিকে ডা. লুৎফর রহমানকে অচেতন অবস্থায় গ্রামের বাড়ি থেকে রামেক হাসপাতালে আনা হয়। ওই সময় অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ সেবনে অসুস্থ হয়ে পড়ার তথ্য পুলিশকে জানান স্বজনরা।

জরুরি বিভাগ থেকে দ্রুত তাকে হাসপাতালের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে নেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ডা. লুৎফর রহমান মারা যান। পরে মরদেহ হাসপাতাল মর্গে নেওয়া হয়।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তবে এর কারণ জানা যায়নি। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি হাসমত আলী জানান, বিষয়টি এখনও আমাদের জানা নেই। খোঁজ নিয়ে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here