টঙ্গীবাড়ীতে মালোশিয়া প্রবাসী পরিবার চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ (ভিডিওসহ)

logo png-full-sizeমোহাম্মদ সেলিম:

টঙ্গীবাড়ীর পুরা গ্রামে মালোশিয়া প্রবাসী সাইফুল আলম খানের পরিবার নতুন দালানঘর উঠাতে গিয়ে চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। কয়েক দফায় চাঁদা নিতে নিতে প্রায় তিন লাখ টাকার মতো চাঁদা নিয়ে গেছেন এক ব্যক্তি। এমনটি অভিযোগ উঠেছে সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

এখন আরো ৫ লাখ টাকা নতুন করে চাঁদা দাবি করছে সেই ব্যক্তি। এখানে চাঁদার অভিযোগ উঠেছে সেই ব্যক্তির নাম হচ্ছে জেদ্দাল হোসেন মোল্লা। তিনি পুরা গ্রামের বাসিন্দা। চাঁদা বর্তমানে টাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনি। এরমধ্যে ঢেউটিনও চাঁদায় মধ্যে যোগ হয়েছে বলে আরো অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব ঘটনায় ইতোমধ্যে

জেদ্দাল হোসেন মোল্লা সাইফুলের পরিবারের বিরুদ্ধে আদালতে একাধিক মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেইসব মামলা উঠিয়ে নিতে জেদ্দাল মোটা অংকের টাকা দাবি করেছেন বলে সাইফুলের পরিবার জানিয়েছেন।

২০১৮ সালের দিকে মালোশিয়া প্রবাসী সাইফুল আলম খান পুরা গ্রামের জেদ্দাল হোসেন মোল্লার কাছ থেকে ৭শতাংশ জমি ক্রয় করেন। তারপরে সাইফুল ঢাকার বুয়েট থেকে ৫তলা ভবন নির্মাণের লক্ষ্যে বাড়ির নকশা তৈরি করে আনেন। আর সেই নকশা অনুযায়ী তিনি বাড়ির ভবন নির্মাণের কাজে হাত দেন।

কিন্তু জেদ্দাল এ বিষয়টি ভালোভাবে নেননি। বরং এ বিষয়টিকে পুঁজি করে জেদ্দাল সাইফুলের পরিবারের কাছ থেকে হুমকি ও ধামকির মাঝে বিপুল পরিমান টাকা চাঁদা হিসেবে হাতিয়ে নেন।

এসব ঘটনায় সাইফুলের পরিবার এখন জেদ্দালের জন্য ভয়ভীতির মধ্যে আছেন বলে তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here