টঙ্গীবাড়ীতে সৌদি প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু (ভিডিওসহ)

20210401_181418মোহাম্মদ সেলিম ও সালমান হাসান:

টঙ্গীবাড়ী উপজেলার আব্দুল্লাপুর ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া এলাকায় সৌদি প্রবাসী সবুজ বেপারির স্ত্রী রিয়ামণি মারা গেছেন। রিয়ামণি এক সন্তানের জননী ছিলেন। তাদের দুই বছর বয়সের সামির নামে এক পুত্র সন্তান রয়েছে। রিয়ামণির মৃত্যু হত্যা না আত্নহত্যা তা নিয়ে এখন প্রশ্ন দেখা দিয়েছে?

গতকাল বুধবার রিয়ামণি রাত ৮টার দিকে মারা যান বলে শোনা যাচ্ছে। তবে টঙ্গীবাড়ীর পুলিশ রাত ১০টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে রিয়ামণির লাশ উদ্ধার করে। সেই সময় সেখান থেকে দুটি কাঠের ডাসা পুলিশ জব্দ করেন বলে রিয়ামণির বাপের বাড়ির সূত্র দাবি করছেন। রাতে হিমবাহিত এম্বুলেন্সে রিয়ামণির লাশ টঙ্গীবাড়ী থানায় রাখা হয়।

165273258_180900520385213_2087889003920536122_nগতকাল বৃহস্পতিবার সেই এম্বুলেন্সে করে রিয়ামণির লাশ ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ময়না তদন্ত শেষে তার লাশ দুপুরের পর সাদুল্লাহ গ্রামে নিয়ে গেলে সেখানে শোকে বাতাস ভাড়ি হয়ে উঠে। সেখানে জানাযা শেষে পঞ্চায়েত কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন করা হয়। রিয়ামণির বাপের বাড়িতে বর্তমানে শোকের মাতম চলছে।

জানা যায়, রিয়ামণিরা এক বোন দুইভাই। খুব আদরের বোন ছিলেন রিয়ামণি। তিনবছর আগে পারিবারিকভাবে রিয়ামণির সবুজ বেপারির সাথে যৌতুক বিহীন বিয়ে হয় বলে জানা গেছে। তবে বিয়ের পরে নানা অজুহাতে দাবি ধাওয়া আসতে থাকে রিয়ামণির বাবার কাছে। সেই দাবি ধাওয়া পুরণের চেষ্ঠা করেন রিয়ামণির বাবা। ঘটনার ১৫ দিন আগেও একটি রঙ্গিন টেলিভিশন দিয়েছেন রিয়ামণির বাবা।

166187044_303281657826574_5620095163114658411_nএমন দাবি উঠেছে এ পরিবার থেকে। সবুজ সৌদি আরবে থাকলেও তার পরিবারের লোকজন বিভিন্ন দাবি ধাওয়া করতেন রিয়ামণির বাবার কাছে। সবুজ বাবা মায়ের এক পুত্র সন্তান। তবে সবুজের আরো চার বোন রয়েছে। তারা সবাই বিবাহিত। তবে এ গ্রামে তাদের কয়েক বোনকে বিয়ে দেয়া হয়েছে। এরফলে সেই বোন ও বোনের জামাইদের এ বাড়িতে ব্যাপক প্রভাব রয়ে ছিল। যাকে বলা হয়ে থাকে হত্যাকর্তা। তারাই এ বাড়িতে সব সময়ে মাধবরি করতেন বলে শোনা যাচ্ছে।

সবুজের এক বোনের জামাই হচ্ছেন কমল শিকদার। তিনি থাকেন গাজীপুরে। তার স্ত্রী ক্যানসারে আক্রান্ত। তিনি বলেন, আমি খবর পেয়ে এখানে এসে ছিলাম।

167560132_458311375588573_6642901174731072976_nপরে রাতেই আমি গাজীপুরে ফিরে যাই। এ হত্যাকান্ডে এখানে একাধিক ব্যাক্তি জড়িত থাকতে পারেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

রিয়ামণির খালা বলেন, গতকাল বুধবার সন্ধ্যার পর তারা বাইরের লোক মারফত মোবাইলে খবর পান রিয়ামণি’র কি যেন হয়েছে। এ খবর পেয়ে তারা স্বামীর সাথে সে আব্দুল্লাপুর ছুটে যান। সেখানে রিয়ামণির শয়ন কক্ষে তার দেহ একটি ওড়না দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে এমনটি দেখতে পান। তিনি আরো বলেন,

রিয়ামণি এদিন রোজা রেখে ছিলেন।

168056958_920683715413776_1929726125482156773_nসে সময়ে তার হাতে খাবার লেগে ছিল। মুখমন্ডল বিষন কালো দেখা গেছে। এ ধরণের সুরতহাল কোনভাবেই প্রমাণ করে না যে রিয়ামণি আত্নহত্যা করেছে। তাদের ধারণা তাকে হত্যা করা হয়েছে। তাদের ধারণা তাকে প্রথমে প্রহার করা হয়েছে। এরপর তাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ কারণে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে প্রহারের আলামত হিসেবে দুটি ডাসা জব্দ করেছেন।

এরপর পুলিশ রিয়ামণির শয়নকক্ষ সীলগালা করে দিয়েছেন। এ ঘটনা প্রসঙ্গে এ প্রতিবেদক রিয়ামণির শশুড় বাড়িতে যান।

20210401_181839তার শাশুড়ী নানা অজুহাতে কিছুই বলতে চান না। সেখান থেকে বের হওয়ার কিছুক্ষণ পরে এ বাড়িতে টঙ্গীবাড়ী থানার পুলিশ আসে।

সবুজের মা ও বোনের জামাই ফারুককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
আব্দুল্লাপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বলেন, তিনি রাতে এ ঘটনাটি শুনেছেন। তার বাড়ির খুব কাছেই সবুজদের বাড়ি। খবর পেয়ে তিনি সেখানে যান এবং আইনগত উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

রিয়ামণির মা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার তিনি টঙ্গীবাড়ীর পুলিশ প্রশাসনের কাছে দাবি করেন। কোনভাবেই যেন আইনের ফাঁক গলিয়ে অপরাধীরা বের হয়ে না যায়।
টঙ্গীবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ হারুন অর রশিদ বলেন, পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here