গর্ভকালীন ভাতার চেকে টাকা পাচ্ছে না মিরকাদিমের মোকসেদা আক্তার

Exif_JPEG_420

শরমিতা লায়লা প্রমি:

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মিরকাদিম পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের নুরপুর গ্রামের দিনমজুর শ্যামল মিয়ার গর্ভবতী স্ত্রী মোকসেদা আক্তার ২০১৯ সালের ১১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর দেয়া গর্ভকালীন ভাতার চেক মহিলা বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মোসাম্মৎ ফজিলাতুন নেছা ইন্দিরা’র কাছ থেকে গ্রহণ করেন গত ১১ নভেম্বর ২০১৯ সালের দিকে।

কিন্তু দু:খের বিষয় হলো মুন্সীগঞ্জ জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর থেকে অগ্রণী ব্যাংক রাম গোপালপুর শাখা থেকে ইস্যুকৃত ৯ হাজার ৬শ’ টাকার চেক নিয়ে টাকা উত্তোলনের জন্যে ব্যাংকে গেলে, ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ জানান উক্ত প্রতিষ্ঠানের ব্যাঙ্ক হিসাবে টাকা নাই।

এইভাবে অনেক দিন ব্যাঙ্ক থেকে টাকা না পেয়ে তাকে খালি হাতে ফেরত আসতে হয় মোকসেদা আক্তারকে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন ব্যাক্তিবর্গের নিকট ধরনা দিয়েও এর কোন সুরাহা মিলেনি তার। এক বছরের অধিক সময় ধরে চেক হাতে নিয়ে ঘুরছেন দিনমজুর শ্যামল মিয়ার স্ত্রী মোকসেদা আক্তার। এদিকে জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে গিয়েও টাকা পাওয়ার বিষয় কোন নিশ্চয়তা পান নাই তিনি।

চেক প্রাপ্তির পর থেকে মোকসেদার সন্তানের বয়স প্রায় দেড় বৎসর হয়ে গেছে। অন্যদিকে করোনা কালিন সময় শ্যামল মিয়ার তেমন কোন কাজ নেই। অভাবের সংসার আর চলে না তাদের। বর্তমানে শিশুটির মুখে দুধ দিতে পারে না অর্থের অভাবে।

তাই প্রধানমন্ত্রীর দেয়া চেক নিয়ে মানুষের কাছে কাছে ঘুওে ফিরছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া গর্ভকালীন ভাতার টাকা কেন শ্যামল মিয়া পাচ্ছেনা।

তার বিপরিতে চেকের টাকা কোথায় গেল এ নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। এই বিষয় মুন্সীগঞ্জ জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এড়িয়ে যেতে পারবে না বলে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন। এ বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী, মহিলা বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী এবং জেলা প্রশাসককে অবিহত করার প্রস্তুতি নেওয়ার কথা জানান শ্যামল মিয়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here