মুন্সীগঞ্জে কালির আটপাড়ায় প্রাচীন তিনটি মন্দির

mnews-groupমোহাম্মদ সেলিম ও সাগর মাহমুদ:

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার রামপাল ইউনিয়নে কালির আটপাড়া এলাকায় প্রাচীন আমলের তিনটি মন্দির রয়েছে। এ তিনটি মন্দির হচ্ছে কালি মন্দির, শিব মন্দির ও রাধা গোবিন্দের মন্দির। রাধা গোবিন্দের মন্দিরকে অনেকে আবার পঞ্চচূড়ার মন্দিরও বলে থাকেন।

এর কারণ হচ্ছে এ মন্দিরের ওপরে পাঁচটি কারুকার্য মন্ডিত নকসার কাজ রয়েছে। এ মন্দির গুলোর আনুমানিক বয়স হচ্ছে তিনশ’ বছর। এ তিনটি মন্দিরে প্রাচীন আমলের দামি দামি মুর্তি ছিল। কিন্তু দেশ স্বাধীনের আগেই সে গুলো চুরি হয়ে গেছে। জনশ্রুতি রয়েছে অমব্যাশায় এখানে নাগ নাগিনীর দেখা পাওয়া যায়। এ নাগ নাগিনী অনেক ধরণের রূপ ধারণ করতে পারেন বলে জনশ্রুতি রয়েছে।

তবে বর্তমানে তিনটি মন্দিরে অনেকেই দুটি করে জোড়া সাপ দেখতে পেয়েছেন বলে এখানকার পূজারিরা জানিয়েছে। তবে এ সাপ কারোর ক্ষতি করে না।

এরমধ্যে কালি মন্দিরটি ইতোমধ্যে নড়বরে অবস্থায় পড়ায় এর পুরনো অবকাঠামো ভেঙ্গে ২০০৬ সালের ৫ জানুয়ারিতে নতুন করে সংস্কার করা হয়েছে। তবে অপর দুটি মন্দিরের অবকাঠামো পুরনোটাই রয়েছে। তবে অবস্থা তেমনটা ভালো না। এরমধ্যে রাধা গোবিন্দের মন্দিরে বারান্দার কাজের সংস্কার করা হচ্ছে।

জানা গেছে, এ তিনটি মন্দির নির্মাণ করে ছিলেন কমলা বালা সুন্দরী। তাঁর স্বামীর মৃত্যুর পর এখানে তিনি প্রথমে কালি মন্দির নির্মাণ করেন। এ কারণে এ এলাকার নাম হয়ে যায় কালির আটপাড়া।

পরে তিনি অপর দুটি মন্দির নির্মাণ করেন। বর্তমানে কালি মন্দিরটি ২ শতাংশ জায়গার ওপর রয়েছে। শিব মন্দিরটি রয়েছে ১১ শতাংশ জায়গার ওপর। আর রাধা গোবিন্দের মন্দিরটি রয়েছে ৪ শতাংশ জায়গার মধ্যে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here