মুন্সীগঞ্জে বজ্রযোগিনী বাজারে প্রাচীন আমলের তিনটি মন্দির

IMG_8940মোহাম্মদ সেলিম ও সালমান হাসান:

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার বজ্রযোগিনী বাজারে প্রাচীন আমলের তিনটি মন্দির। এখানে রয়েছে কালী মন্দির। শিব মন্দির ও লক্ষি নারায়ণের মন্দির। রায় বাহাদুর জমিদার কালি কিশোর গুহ এর পূর্ব পুরুষরা এখানে পূজা অর্চ্চনা করার জন্য তিনটি মন্দির নির্মাণ করেন।

এখানে সেই সময়ে পূজার জন্য তারা দামি দামি মুর্তি গড়ে তুলেন। বাসুদেব এর শ্বেত পাথরের মূর্তিসহ আরো একাধিক কষ্ঠি পাথরের মূর্তি এখানে ছিল বলে অনেকেই ধারণা করছেন। পরে অমূল্য কিছু মূর্তি ঢাকা যাদু ঘরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ঢাকা যাদু ঘরে যেসব মূতি বজ্রযোগিনী হিসেবে লেখা রয়েছে, সেগুলো এখানকার মূর্তি বলে স্থানীয় অনেকেই দাবি করছেন। এছাড়া এখানকার মূল্যবান কিছু মূর্তি চুরি হয়েছে বলে মন্দিরের কর্তা ব্যক্তিরা অভিযোগ করেছেন।

কালি কিশোর গুহ পরিবাররা এখানে প্রভাবশালী জমিদার ছিলেন। তারা পালকি দিয়ে এখানে বিভিন্ন স্থানে চলাচল করতেন বলে জনশ্রুতি রয়েছে।

এদিকে মন্দির তিনটি আর্থিক অনটনের কারণে মন্দিরটি সংস্কার হচ্ছে না। সংস্কারের অভাবে মন্দির তিনটি অযত্নে এর ভবন ব্যবহারের অনুপোযুগি হয়ে উঠেছে। ইতোপূর্বে মন্দিরের ভিমের দামি কাঠ চোরে চুরি করে নিয়ে গেছে।
মন্দিরের সামনের উপরের অংশে নানা রকমের কারুকাজ রয়েছে। কিন্তু সামনের অংশে দোকানপাট গড়ে উঠায় সেই সুন্দর্য ঢাকা পড়ে গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here