মুন্সীগঞ্জে কঠোর লকডাউনের তৃতীয় দিন অতিবাহিত

212060336_550488775964629_6659758646254462300_nমোহাম্মদ সেলিম:

আজ শনিবার মুন্সীগঞ্জে কঠোর লকডাউনের তৃতীয় দিন অতিবাহিত হল। আজ শনিবার তেমন কোন বৃষ্টি ছিল না। গত বুধবার থেকে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত লাগাতার বৃষ্টি ছিল। এরমধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় দিনের লকডাউন শেষ হয়েছে। সাতদিনের লকডাউন শেষ হবে ৭ জুলাই।

বিকেলের দিকে সিপাহীপাড়ায় মোবাইল কোর্টের একটি গাড়ী প্রবেশ করে। সাথে বর্ডার গার্ডের গাড়ী ছিল। এই খবর অটো ও মিশুক চালকরা সিপাহীপাড়া থেকে রিকাবীবাজারে ছড়িয়ে দেয়। তাতে খোলা দোকানপাট মুহূর্তের মধ্যে বন্ধ হয়ে যায়।

তবে অনেকে আবার দোকানের ভেতর থেকে দোকান আটকিয়ে ভেতরে বসে থাকনে। বিষয়টি দেখতে পান মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: ইলিয়াস শিকদার। তখন তিনি তাদের সর্তক করে দেন। এছাড়া মোবাইল কোর্টের ভয়ে অনেকে দ্রুত দোকান বন্ধের চেষ্ঠা চালায় তাদেরকে তিনি সর্তক করে দেন।

এছাড়া এসব এলাকা থেকে মোবাইল কোর্ট চলে গেলে দোকানপার্ট আগের মতো খুলে রাখতে দেখা যায়। মোবাইল কোর্টের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মো: ইলিয়াস শিকদার রিকাবীবাজারের চৌরাস্তা থেকে বটতলা পর্যন্ত পায়ে হেটে এসব এলাকা পরিদর্শন করেন।

আজ শনিবার সকালের দিকে লকডাউনের কঠোরতা লক্ষ্য করা গেছে। তবে দুপুরের পর থেকে লকডাউন ঢিলাঢালা ভাব ছিল। লকডাউনের কারণে এখন সব জায়গাতে অটো কিংবা মিশুকের ভাড়া আগের তুলনায় অনেকটা বেড়ে গেছে।

জোড়পুকুরপাড়ের পেট্রোলপাম্পের কাছে মিশুক ও অটোসহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। তবে এখানকার দোকানপাট বন্ধ রাখতে দেখা গেছে।

মুক্তারপুর থেকে মাওয়া ও নারায়ণগঞ্জে মিশুক অটো চলাচল করতে দেখা যায়। সিপাহীপাড়াতে অনুরূপ যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে। দয়ালবাজার থেকে বিসিক পর্যন্ত বেশিরভাগ দোকানপাট খোলা ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here