মুন্সীগঞ্জে মুক্তারপুরে লকডাউনের পরিস্থিতি (ভিডিওসহ)

IMG_0085মোহাম্মদ সেলিম ও সাগর মাহমুদ:

মুন্সীগঞ্জে সোমবার ২৬ জুলাই কঠোর লকডাউনের চিত্র একেক জায়গায় একেক রকমভাবে দেখা গেছে। এরমধ্যে দিয়ে মানুষ বাড়ি থেকে বের হচ্ছে।

কিছু কিছু জায়গায় পুলিশের বাঁধার মুখে পড়ে খন্ড খন্ড ভাঙ্গা দিয়ে যে যার মতো করে গন্তব্যে স্থলে পৌঁছাতে চেষ্টা করছেন।

mnews-eid-wishতাতে চলাচলে টাকা পয়সা একটু বেশি খরচ হচ্ছে আর কি। এর ফলে মানুষের বের হওয়া কোনভাবেই থামানো যাচ্ছে না। এরমধ্যে মুন্সীগঞ্জ শহরে এম্ব্যুলেন্স যাতায়াত আগের তুলনা অনেকটাই বেড়ে গেছে।

এ বিষয়ে অনেকের ধারণা এসব এম্ব্যুলেন্সে যাত্রী আসা যাওয়া করছে। এ বিষয়টি প্রশাসনের আরো একটু বেশি নজর দেয়া প্রয়োজন বলে অনেকেই ধারণা করছেন।

IMG_0071মুন্সীগঞ্জ ফায়ার স্টেশনের কাছে পুলিশের আরো একটি চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। তাতে যাতায়াতে মানুষের ভোগান্তির মাত্রা একটু বেড়ে গেছে।

মুন্সীগঞ্জ শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ও কৃষি ব্যাংকের কাছ পুলিশের চেকপোস্ট রয়েছে। এ দুটি স্থান থেকে পায়ে হেটে লোকজনকে ফায়ার স্টেশন থেকে অটো কিংবা মিশুকে করে মুক্তারপুর যেতে হয়।

IMG_0084ঐদুটি স্থান থেকে অটোতে যমুনাব্যাংক পর্যন্ত যেতে এখন ভাড়া নেয়া হচ্ছে ১০ টাকা। আর মুক্তারপুর পেট্টোলপাম্প থেকে সিপাহীপাড়া যেতে অটোকে ১০ টাকা দিতে হচ্ছে। আগে এই দুটি জায়গা যেতে ভাড়া ছিল মাত্র ৫টাকা।

মুক্তারপুর সেতুর কাছে পুলিশের চেকপোস্টের তৎপরতা ছিলো অনেকটাই ঢিলাঢালা। এখানে কখনো কখনো মিডিয়ার উপস্থিতি দেখলে পুলিশ নড়াচড়া শুরু করে। তখন কিছু কিছু মিশুকের সিট পুলিশ নিয়ে নেয়। তবে সেই সিট আধা ঘন্টা পর ফিরিয়ে দিচ্ছে।

IMG_0094কিন্তু তাতে এখানে অটো কিংবা মিশুকের ভীর কোনভাবেই কমানো যাচ্ছে না। এখানে মানুষের জটলা ছিল দিনভর। এখান থেকে লোকজন চাহিদা স্থানে যেতে পারছে কোন বাঁধা ছাড়াই।

অনেকের দাবি করছেন এখানে স্থায়ীভাবে মোবাইল কোর্ট রাখা হউক। মুক্তারপুর কাছে বিকেলের দিকে চটপট্টির দোকানও বসানো হচ্ছে। এছাড়া বিকেলের দিকে সেতুতে অনেকে ঘুরতে যাচ্ছেন।

IMG_0069সকালের দিকে পেট্টোলপাম্পের কাছে দায়িত্বরত পুলিশের তৎপরতা ছিল অনেকটা ভালো। তাঁরা এখানে যতটুকু সম্ভব কি কারণে কে কোথায় যাচ্ছেন তা দেখে শুনো তবে যানবাহন ছেড়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here