সিরাজদিখানে কোরআন অবমাননার দায়ে দুই ব্যক্তি কারাগারে

241889401_979393699505796_4798558984739069819_nনিজস্ব প্রতিবেদক:

সিরাজদিখানে পবিত্র কোরআন শরীফকে অবমাননা করার দায়ে দুই ব্যক্তিকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। আজ বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সিরাজদিখান পুলিশের হাতে আটক শাহাজাদা ও গোপি ঘোষ নামে দুই ব্যক্তিকে মুন্সিগঞ্জ আদালতে হাজির করা হলে আমলি আদালত-২ এর বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল্লাহ-আল- ইউসুফ তাদের জেল-হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

এ তথ্য নিশ্চিত করে মুন্সিগঞ্জ কোট পুলিশের দায়িত্বরত জিআরও হালিমা জানান, দুই আসামিকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।এর আগে মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে আটক শাহজাদা তার কথিত মুরিদ গোপি ঘোষের সিরাজদিখান থানা মোড় বাজার এলাকার মা ক্ষীর মিষ্টান্ন ভান্ডার দোকানে বসে একটি

পবিত্র কোরআন শরীফ হাতে নিয়ে পৃষ্ঠা উল্টিয়ে কলম দিয়ে বিভিন্ন স্থানে কোরআন শরীফের অংকন করে বলতে থাকে কোরআন শরীফের এই এই স্থানে ভুল রয়েছে।

এ সময় ওই দোকানে আসা ক্রেতারা এই দৃশ্য দেখতে পেয়ে শাহজাদাকে আটক করে। পরে সিরাজদিখান থানায় খবর দিলে পুলিশ ও দোকানে আসা ক্রেতারা তাকে ধরে থানায় নিয়ে যায়। এ সময় মা ক্ষীর মিষ্টান্ন ভান্ডারের মালিক গোপি ঘোষ আটক শাহজাদা তার পীর বলে মানুষজনের সাথে বাকবিতন্ডা করে। গোপি ঘোষ উপস্থিত মানুষকে বলে তার পীর শাহজাদা কোরআন শরীফ থেকে বেশি বুঝে। সে অবমাননা করে নাই।

আরো বলেন, আমার পীরের জন্য আমি সব করতে পারি। তার জন্য আমি আমার ধর্ম, আমার পরিবার ত্যাগ করতে পারি। এমনকি গরুর মাংস খেতেও পারি। থানায় অভিযোগকারী মো.আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আমি দোকানের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় দেখি আমাদের পবিত্র কোরআন শরীফকে অবমাননা করছে এই শাহজাদা।

তখন আমি দোকানে থাকা মানুষজন নিয়ে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যাই। আমি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি। সে আরো বলেন,শাহজাদা এটা ঠিক করেনি। আমাদের পবিত্র গ্রন্থ পবিত্র কোরআনকে এই অবমাননা করা মোটেও ঠিক হয়নি। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার দাবি জানাচ্ছি।

আসামীদের বিরুদ্ধে সিরাজদিখান থানায় দুই জনকে আসামী করে নিয়মিত মামলা রুজু করা হলে পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে‌ অপর আসামি গোপি ঘোষকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন জানান,

কোরআন শরিফ অবমাননার দায়ে দুই জনের বিরুদ্ধে সিরাজদিখান থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয়।গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here