সিরাজদিখানে পূর্ব শত্রুুতার জের ধরে হামলা, আহত ১

28080605_2050264248563867_1142686681_o(1)

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম: পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মাছের ঝোপ নিয়ে বিবাদে সিরাজদিখান বাহের ঘাটা গ্রামের মোঃ হাবিল গাজী (৩৮) নামের এক ব্যক্তির উপর হামলা করেছে প্রতিপক্ষ।

আহত মোঃ হাবিল গাজী বয়রাগাদী ইউনিয়নের বাহেরঘাটা গ্রামের মৃত নোয়াব মিয়া গাজীর ছেলে। বুধবার বিকেল ৩টায় সময় এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় মোঃ হাবিল গাজী বাদী হয়ে সিরাজদিখান থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কয়েকবছর পূর্বে মোঃ হাবিল গাজী ও সাথে একই গ্রামের মোবারকের ছেলে আওলাদ সহ (৩০) বেশ কয়েকজনের সাথে মাছের ঝোপ নদীতে পাতা ও ইজারার বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। বুধবার বিকেলে হাবিল গাজী বাজার থেকে বাড়িতে যাওয়ার পথে বাহেরঘাটা বায়তুলনূর মসজিদ( গাংগের পার মসজিদ)মসজিদের সামনে যাওয়ার পর আওলাদসহ কয়েকজন মিলে দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তার পথরোধ করে এলোপাতাড়িভাবে লাঠিপেটা করে মারাত্মকভাবে আহত করে পালিয়ে যায়।

এসময় হাবিল মিয়ার চিৎকারে স্থানীয়রা এসে থাকে উদ্ধার করে সিরাজদিখান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে আসে। বর্তমানে হাবিল মিয়া হাসপাতালেরর্ চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি আছেন।

আহত মোঃ হাবিল গাজী বলেন,আমি বাহের ঘাটা গাংগের মোরে মাছের ঝোপ ফেলে আসছি ১৭ বছর যাবৎ। গত দুই বছর পূর্বে বাহেরঘাটা বায়তুলনূর মসজিদ( গাংগের পার মসজিদ)মসজিদের সভাপতি হালীম ও আওলাদ আমাকে ওই জায়গায় মাছের ঝোপ ফেললে মসজিদে টাকা দিতে হবে বললে আমি ওই জায়গায় মাছের ঝোপ ফেলা বন্ধ করে দেই।এরম পর আওলাদ একবার পাঁচ হাজার টাকা মসজিদে দিয়ে ওই জায়গায় মাছের ঝোপ ফেলে আসছে । আমি জানতে পারি পরপর দুই বছর মসজিদে আার কোন টাকা আওলাদা দেয় না। আমি এবার ওই জায়গায় মাছের ঝোপ ফেলতে গেলে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমাকে লাঠি দিয়ে ও রড দিয়ে পিটেয়ে মেরে ফেলতে চায়।

এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম জানান, বাহের ঘাটা গ্রামে মারামারির ঘটনা শুনেছি। মারামারির ঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here