সিরাজদিখানে অটোরিকশা গ্যারেজ থেকে বিপুল পরিমাণ নকল গাইড বই উদ্ধার

28379124_961909140643332_236035198998489590_nশুক্রবার, ২ মার্চ ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম: সিরাজদিখানে একটি অটোরিকশা গ্যারেজে অভিযান চালিয়ে প্রথম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত বিপুল পরিমাণ গাইড বই উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ সময় সেখান থেকে বই বাঁধানোর কাজে ব্যবহৃত কাটিং বাইন্ডিং মেশিন জব্দ করা হয়। তবে এ ঘটনায় পুলিশ কাউকে আটক বা গ্রেফতার করতে পারেনি।

বুধবার দিবাগত রাত ৮ টার দিকে সিরাজদিখান উপজেলার বালুরচর ইউনিয়নের খাসকান্দি মধ্যচর গ্রামের শাহজাহানের অটোরিকশা গ্যারেজে অভিযান চালিয়ে পুলিশ ওই গাইড বই উদ্ধার করে।

এই ঘটনায় রাজধানীর স্বনামধন্য লেকচার পাবলিকেশন্স প্রকাশনা প্রতিষ্টানের কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে নাজমুল হাসান (৩২) ও সেন্টু ঢালী (৩৫) নামে ২ জনকে আসামী করে সিরাজদিখান থানায় কপি রাইট আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
নাজমুল হাসান কুমিল্লা জেলার মেঘনা থানার শ্যামনগর গ্রামের আবুল হোসেনের পুত্র এবং সেন্টু ঢালী মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গীবাড়ী থানার খলগাও হাশেম গ্রামের ঢালীর পুত্র ।

পুলিশ জানিয়েছে- লেকচার পাবলিকেশন্স ও অ্যাডভান্স পাবলিকেশন্স নামে রাজধানীর স্বনামধন্য ২ টি প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের প্রথম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত বাংলা, ইংরেজি, বিজ্ঞানসহ বিভিন্ন বিষয়ের গাইড বই বিভিন্ন প্রেস থেকে ছাপানোর শেষে সিরাজদিখানের ওই অটোরিকশা গ্যারেজে বাঁধানোর কাজ করা হচ্ছিল। এতে ধারনা করা হচ্ছে একটি চক্র ওই ২ টি প্রকাশনা

প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে বিভিন্ন শ্রেণির নকল গাইড বই ছাপিয়ে তা বাঁধানো শেষে বাজারে বিক্রি করে আসছিল।
সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাত ৮ টার দিকে উপজেলার বালুরচর ইউনিয়নের খাসকান্দি গ্রামের শাহজাহানের অটোরিকশা গ্যারেজে অভিযান চালায় পুলিশ।

এ সময় সেখান থেকে পুলিশ প্রথম শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণির বিভিন্ন বিষয়ের গাইড বই উদ্ধার করেন। একই সঙ্গে একটি কাটিং মেশিন ও একটি বাইন্ডিং মেশিনও জব্দ করা হয়। তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সেখানে বই বাঁধানোর কাজে থাকা লোকজন পালিয়ে যায়। উদ্ধার করা গাইড বইয়ের মধ্যে লেকচার পাবলিকেশন্সের ২ টন ও লেকচার পাবলিকেশন্সের ১ টন গাউড বই রয়েছে।

থানার ভারপ্রাপ্ত ওই কর্মকর্তা আরো জানান, মূলত: অটোরিকশার গ্যারেজের সাইনবোর্ড টানিয়ে সেখানে নকল গাইড বই বাঁধানোর কাজ চলছিল। একটি চক্র বিভিন্ন প্রেস থেকে নামী-দামী ২ টি প্রকাশনার নাম ব্যবহার করে গাইড বই ছাপিয়ে তারপর সেখানে বাঁধাই করত। এরপর ওই গাইড বই বাজারে বিক্রি করত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here