গজারিয়ার আনারপুর গ্রামে নারীদের গোসলের কাপড় পাল্টানো স্থানে গোপন ক্যামেরা! অপরাধী পালিয়ে গেছে

সোমবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম: গজারিয়ার মেঘনা নদীর শাখা নদীর পাড়ে অত্র এলাকার গোসলের ঘাটলায় নারীদের কাপড় পাল্টানো স্থানে গোপনে ক্যামেরা বসানো হয়েছে। আর তার মাধ্যমে নারীদের কাপড় পাল্টানোর দৃশ্যে ভিডিও ধারণ করার বিষয়ে এক যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভিডিও ধারণ করার সময় সেই আলোচিত যুবক হাতে নাতে এলাকাবাসীর কাছে ধরা পড়ে। যুবকটির নাম হচ্ছে আরাফাত।

বখাটে এই যুবক আরাফাত গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়নে আনারপুরা গ্রামের শাহিন মিয়ার ছেলে। সে একই ইউনিয়নের নয়াকান্দী গ্রামের জলিল ভুইয়ার নাতী।

স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, রবিবার ২২ এপ্রিল সকাল ৮টার দিকে ভবেরচর ইউনিয়নে নয়াকান্দি গ্রামে নদীর পাড়ে নারীদের গোসলের ঘাটলায় গোপন ক্যামেরা রাউডার লাগিয়ে ১০০ মিটার দূর থেকে গৃহবধুদের কাপড় পরিবর্তনের দৃশ্যে ভিডিও ধারণ করছিলো আরাফাত।

এ সময় একজন গৃহবধু কাপড় পরিবর্তন করতে সেখানে গেলে তার চোখ পড়ে ক্যামেরার দিকে। তাৎক্ষনিকভাবে সেই গৃহবধু তার স্বামীকে বিষয়টি জানালে স্বামী এসে হাতে নাতে ধরে আরাফাতকে।

ঘটনাটি মুহূর্তের মধ্যে এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে লোকজন নদীর পাড়ে ভির জমায়।
এ সময় উপস্থিত লোকজনের জিজ্ঞাসা বাদে বখাটে আরাফাত এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা তাদের কাছে স্বীকার করে।

পরে এ ঘটনায় গ্রামবাসী আরাফাতকে আটক করে রাখে। এরপর আরফাতের নানার বাড়ির আত্মীয় স্বজন ঘটনাস্থলে এসে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

গজারিয়া থানার পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে। পরে ক্যামেরা রাউডার জদ্ধ করে থানায় নিয়ে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বখাটে যুবক আরাফাত বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।

প্রতীকি ফাইল ছবি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here