সিরাজদিখানে স্ত্রীর কাছে নেশার টাকা চেয়ে না পাওয়ায় যুবকের আত্মহত্যা

শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

sirnesa111

সিরাজদিখানে স্ত্রীর কাছে নেশার টাকা চেয়ে না পাওয়ায় বিষপানে অঞ্জন পাল (৩৫) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন।বুধবার রাত ১টার দিকে উপজেলার রামকৃষ্ণদী গ্রামের শ্বশুরবাড়িতে আত্মহত্যা করেন তিনি।

নিহত অঞ্জন পাল কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল গ্রামের মৃত নারায়ণ পালের ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, অঞ্জন পেশায় মাছের আড়তদার ছিলেন। তাড়াইল উপজেলায় অঞ্জন দীর্ঘদিন ধরেই ইয়াবা, গাঁজাসহ সব ধরনের নেশায় আসক্ত ছিলেন। এ কারণে তার পরিবার কিশোরগঞ্জের এক মাদকাসক্ত নিরাময়কেন্দ্রে রেখেছিল তিন মাস। ওখান থেকে আট মাস আগে বের হয়ে শ্বশুরবাড়ি সিরাজদিখান উপজেলার রামকৃষ্ণ গ্রামে এসে বাজারে এক মিষ্টির দোকানে কাজ নেন অঞ্জন।

গত বুধবার সকালে নেশার জন্য স্ত্রী পূজা পালের নিকট এক হাজার টাকা চান অঞ্জন। স্ত্রী টাকা জোগাড় করে দিতে না পারায় রাতে ইঁদুর মারার বিষপান করে আত্মহত্যা করেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় পুলিশ।

নিহত অঞ্জন পালের স্ত্রী পূজা পাল বলেন, আমার স্বামী সর্ব নেশা আসক্ত একজন মানুষ। তাই শ্বশুরবাড়ির লোকজন স্বামীকে ভালো করতে কিশোরগঞ্জের এক মাদকাসক্ত নিরাময়কেন্দ্রে তিন মাস চিকিৎসা করে ভালো করে।

বাড়ি ফিরে সে আবারও নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ে। পরে আমার শ্বশুরবাড়ির লোকজন পরিবেশ পরিবর্তনের জন্য আট মাস আগে স্বামী ও দুই সন্তানসহ আমাকে বাবার বাড়ি সিরাজদিখানের রামকৃষ্ণদী গ্রামে পাঠিয়ে দেন।

গত বুধবার রাতে নেশার টাকা না পেয়ে আমার স্বামী অঞ্জন পাল ইঁদুর মারার বিষপান করেন।

সিরাজদিখান থানার এসআই মোনায়েম মোল্লা ও এএসআই মোজ্জাম্মেল হক বলেন, নেশার টাকা না পেয়েই অঞ্জন পাল আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

ময়নাতদন্তের পর সঠিকভাবে বলা যাবে অঞ্জন পালের মৃত্যুর কারণ। এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তারা।

যুগান্তর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here