শাহজাহান বাচ্চুর খুনি জঙ্গি শামীম’এর লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন

নাজির হোসেন ও তুষার আহমেদ, বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

rrPbrfQqbKUNRtRubetl

শ্রীনগরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত দুই জঙ্গির মধ্যে ‘বোমা শামীম’র মরদেহ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়েছে।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইউনুস আলী  এ তথ্য জানান।

‘নিহত দুই জঙ্গির মধ্যে এখলাসুরের লাশ তার স্বজনের কাছে আগেই হস্তান্তর করা হয়েছে। কিন্তু, ৫ দিন পরও শামীমের লাশ নিতে কেউ আসেনি। এদিকে হাসপাতাল মর্গে হিমঘরের ব্যবস্থা না থাকায় লাশ পচতে শুরু করেছে। তাই, বুধবার দুপুরে তার লাশ দাফন করা হয়।’

গত ৭ সেপ্টেম্বর শুক্রবার মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে কেসি রোড এলাকায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে দুই জঙ্গি নিহত হয়।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী জানান, বেওয়ারিশ হিসেবে বুধবার বেলা ২টার দিকে জেলা আইনজীবী সমিতি কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ‘জঙ্গি বোমা শামীমের পরিবারও ডাকাতির সঙ্গে জড়িত বলে জানা গেছে। ঘটনাস্থল থেকে পিস্তল, ম্যাগাজিন, তিন রাউন্ড গুলি, ১১টি ককটেল, দুটি ছোরা ও একটি রেজিস্ট্রিবিহীন মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় শ্রীনগর থানায় পৃথক তিনটি মামলা করা হয়েছে। হত্যা, অস্ত্র ও পুলিশ এসল্টের অভিযোগে করা মামলা তিনটি করেছেন থানার এসআই মাসুদ মুন্সী। এতে পলাতক অজ্ঞাত দুই জঙ্গিকে আসামি করা হয়েছে।

গত ১১ জুন সিরাজদীখানের কাকলদী এলাকায় লেখক ও প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চু হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী ছিল জঙ্গি বোমা শামীম এবং এখলাসুর ছিল অস্ত্রের জোগানদাতা। এর আগে ২৮ জুন জঙ্গি আব্দুর রহমানও বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়। এ নিয়ে লেখক ও প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চু হত্যা মামলার তিন আসামি নিহত হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত আড়াই বছর আগে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় থাকাবস্থায় লেখক ও প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চুকে হত্যার টার্গেট কওে জেএমবির জঙ্গিরা। সে সময় জঙ্গিদের হত্যার হুমকির কারণে শাহজাহান বাচ্চু পঞ্চগড় থেকে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানের কাকালদি গ্রামের বাড়ি চলে আসেন।

সেখান থেকেই শাহজাহান বাচ্চুকে হত্যার উদ্যেশ্যে পিছু নেয় পুরনো জেএমবির জঙ্গিরা। হত্যাকান্ডের তিন মাস আগেই জেএমবির ঢাকা বিভাগীয় সামরিক কমান্ডার আবদুর রহমান ওরফে লালু সিরাজদীখানের খাসমহল বালুরচর এলাকায় বাসা ভাড়া নেয়। সেখানেই হত্যার পরিকল্পনা ও ছক তৈরি করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১১ জুন সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে পূর্ব কাকালদী (মুন্সিগঞ্জ-শ্রীনগর সড়কের) তিন রাস্তার মোড়ে আনোয়ার হোসেনের ফার্মেসী থেকে বেড় হওয়ার পর দুর্বৃত্তের গুলিতে শাজাহান বাচ্চু খুন হয়।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে ২ টি মোটর সাইকেলে ৪ জন এসে তাকে ধরে রাস্তায় নিয়ে গুলি করে হত্যা করে মোটরসাইকেলে চড়ে দ্রুত পালিয়ে যায় হত্যাকারীরা।

শাহজাহান বাচ্চু ও জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ‘আমাদের বিক্রমপুর’ নামে একটি সাপ্তাহিক পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন তিনি। এ ছাড়াও মুক্তচিক্তার লেখক শাজাহান বাচ্চু বিভিন্ন ব্লগার ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিয়মিত লেখালেখি করতেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here