আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পরা দুই ইউপি সদস্য টঙ্গীবাড়ীত‌ে গ্রাম্য সালিশকে পাত্তা দিলেন না

রোববার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

Tongibari-01-696x333

টঙ্গীবাড়ি উপজেলার হাসাইল বানারীর ইউপি সদস্যকে গত শুক্রবার (৭ সেপ্টেম্বর) বানারী চরাঞ্চলের বনঝোঁপ থেকে আপত্তিকর অবস্থায় স্থানীয়রা হাতেনাতে আটক করে।

পরে স্থানীয়রা আটককৃত হাসাইল-বানারী ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার আলী আকবর ঢালী ও সংরক্ষিত আসনের সাবেক মহিলা মেম্বার নারগিস বেগমকে বিচারের দাবীতে হাসাইল-বানারী ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হালদারের কাছে হস্তান্তর করেন।

এই ঘটনা চারিদিকে জানাজানি হলে শত শত উচ্ছুক জনতা চেয়ারম্যানের বাড়িতে ভীড় জমায়। পরবর্তীতে চেয়ারম্যান আনোয়ার হালদার থেকে স্থানীয় কাদির বেপারী, সংরক্ষিত মহিলা আসনের ইউপি সদস্য কাজলি বেগম, সাবেক চেয়ারম্যান জয়নাল খালাসি,

সাবেক চেয়ারম্যান আব্বাস শেখ ও দিদার ফকির গংরা যথাযথ বিচারের প্রুতিশ্রুতি ও তারিখ নির্ধারণ করে তাদের জিম্মায় অভিযুক্ত ওই দুই ইউপি সদস্যকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

এঘটনায় শুক্রবার (১৪ সেপ্টেম্বর) হাসাইল-বানারী ইউপি চেয়ারম্যনের নিজ বসত ভিটায় বিকালে সালিশি বৈঠক বসার কথা ছিল। কিন্তু চেয়ারম্যান ও একাধিক গ্রাম্য মাদবর গ্রাম্য সালিশি বৈঠকে উপস্থিত হয় এবং বিচারের রায় শুনার জন্য শত শত স্থানীয় বাসিন্দারা সমবেত হয়।বিকাল গড়িয়ে রাত হয়ে গেলেও অভিযুক্ত ওই দুই ইউপি সদস্যের দেখা মিলেনি।

এই বিষয়ে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে অভিযুক্ত আলী আকবর ঢালী বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগটি মিথ্যা, অপর অভিযুক্ত নারগিস বেগম উপস্থিত না হওয়ার কারনে আমিও সালিশি বৈঠকে আসিনি।

পরে নারগিস বেগমের সাথে যোগাযোগ করা হলে সাংবাদিক পরিচয় দেবার পর সাথে সাথে কল কেঁটে মোবাইল বন্ধ করে দেন তিনি। পরবর্তীতে তার সাথে আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এব্যাপারে হাসাইল-বানারী ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হালদার জানান, এর আগেও অভিযুক্ত এই দু’জনকে আপত্তিকর অবস্থায় স্থানীয়রা আটক করেন। তখন তাদের পরিবারের কথা বিবেচনা করে সাবধান বাণী দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। গত শুক্রবার কিছু মোটরসাইকেল চালক তাদের আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে আমার কাছে নিয়ে আসেন।

আজকের সালিশি বৈঠকে তাদের বিচার হবার কথা ছিল । সালিশি বৈঠকে অভিযুক্তরা উপস্থিত না হওয়ার কারনে বিচার স্থগিত করা হয়েছে। সকলের সম্মতিক্রমে আগামী বুধবার নতুন করে সালিশি বৈঠকের দিন ধার্য করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here