মুন্সিগঞ্জে বিএনপি’র রাজনীতি: শাহ মোয়াজ্জেম-রিপন-আব্দুল হাই মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন

সোমবার, ১২ নভেম্বর ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

46078293_594317217679579_6283582302744215552_n

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন্দ্রিয় বিএনপি মনোনয়ন পত্র ফরম বিক্রি শুরু করেছেন। এ কারণে মুন্সিগঞ্জের তিনটি আসনে নির্বাচনী ভোটের হাওয়া আরো জমে উঠেছে। নেতা কর্মীদের মাঝে ভোটের হাওয়ার উৎসব বিরাজ করছে।

aahar-bilas

এ মুহূর্তে খবর পাওয়া গেছে মুন্সিগঞ্জ ১ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন বর্ষিন নেতা শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন। এ আসনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থীও এখানে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন। তবে এখানে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন শ্রীনগর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মমিন আলী। শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনকে এখানে বিএনপির প্রার্থী করা হলে বিএনপি থেকে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে দাঁড়াতে পারেন তাকেসহ অন্যান্য আরো নেতারা। এখানে স্থানীয় বিএনপির কোন্দল বছরের পর বছর ধরে চলছে। কিন্তু কোনভাবেই তা প্রশমিত করা হয়নি।

45991339_655690324828321_2008574170740293632_n

এর ফলে আসন্ন এ নির্বাচন এখানে বিএনপির প্রার্থী যাকেই করা হউক না কেন, তা অনেকটাই হুমকির মুখে পড়বে বলে এখানকার বিএনপির ভোটাররা মনে করছেন। আসন্ন নির্বাচনকে সামনে রেখে নাকের ডোগায় কোন্দল প্রশমিত কোন কাজে লাগবে না বলেই অনেকই মনে করছেন। এখানে কোন্দলের হাওয়া ভোটের হাওয়ার চেয়েও গরম। এখানে উপজেলা পর্যায়ে দুই গ্রুপের নেতারাই দাবি করছেন তারা মুলধারা বিএনপির নেতা। আর তাকেই কেন্দ্রে করেই এখানে উপজেলার দাবিদার নেতারা একাধিকবার সংর্ঘষে লিপ্ত হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ ২ আসনে বিএনপির মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন মুন্সিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী আজগর রিপন মল্লিক। তবে এখানে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হচ্ছেন প্রভাবশালী নেতা মিজানুর রহমান সিনহা।
এখানেও উপজেলা কমিটি নিয়ে কোন্দলের বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে। কোন্দলের মাত্রা এতো ভারী হয়েছে যে এখানে মির্জা ফকরুলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে ইতোপূর্বে। এমন ধরণের ঘটনা দেশের আর কোথাও ঘটেনি।

মুন্সিগঞ্জ ৩ আসন থেকে জেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল হাই মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। তবে তিনি এ আসন থেকে বিএনপির মনোনয়ন পাবে কি পাবে না, তা নিয়ে দলের নেতা কর্মীদের সংশয় রয়েছে। কারণ হচ্ছে ২০০৭ সালের ১/১১ এর সেনাবাহিনীর সময় সেনা সমর্থিত প্রয়াত ফেরদৌস কোরাশির কিংপার্টি আব্দুল হাই যোগদেন। সেই সময় তিনি খালেদা জিয়ার উদ্দেশ্যে বলেন, মা-ছেলে মিল্লা দেশটা খাইছে গিল্লা।

পরে তিনি থুক্কু দিয়ে আবার বিএনপিতে ফিরে আসেন। কিন্তু ফিরে আসলেও তাকে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মুন্সিগঞ্জ ৩ আসনের পরিবর্তে ঢাকার আসনে মনোনয়ন দেয় বিএনপি। সেক্ষেত্রে শেষ মুহুর্তে বিএনপি এ আসনে মনোনয়ন প্রার্থী পরিবর্তন করতে পারে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এ মুহূর্তে এ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কারুজ্জামান রতনের নাম শোনা যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here