বিএনপি নেতা সিনহার বিরুদ্ধে টঙ্গীবাড়ী শ্রমিকদল নেতার মামলা

বৃহস্পতিবার, ২৯ নভেম্বর ২০১৮, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

tongibaribnp1111

টঙ্গীবাড়ী বাজারে বিএনপির দুই পক্ষে সংঘর্ষের ঘটনায় কেন্দ্রীয় বিএনপির কোষাধ্যক্ষ ও সাবেক স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী মিজানুর রহমান সিনহার বিরুদ্ধে টঙ্গীবাড়ী থানায় মামলা করেছেন উপজেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হান্নান মল্লিক।

গতকাল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে টঙ্গীবাড়ীতে মুন্সিগঞ্জ-২ আসনের মনোনয়নপত্র দাখিল করতে গেলে বিএনপির দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। রাতে পৃথক তিনটি মামলায় ১৬৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো দুই-তিনশজনকে আসামি করে মামলা করা হয়। এর মধ্যে একটি মামলায় আসামি করা হয় মুন্সিগঞ্জ-২ আসনের বিএনপির প্রার্থী ও কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান সিনহাকে।

aahar-bilas

টঙ্গীবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আওলাদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় উপজেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হান্নান মল্লিক বাদী হয়ে মামলা করেন। এ মামলায় মিজানুর রহমান সিনহাকে আসামি করা হয়েছে। বিস্ফোরক ও দেশি অস্ত্র-সংক্রান্ত মামলা ও পুলিশকে হেনস্তার মামলায় বাদী হন থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মুজাহিদ। এ ঘটনায় ১০ জনকে আটক করা হয়েছে এবং আটটি ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় টঙ্গিবাড়ী থানার দুই কনস্টেবল ফারুক ও জীবন আহত হন। তাঁদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে, এ সংঘর্ষের ঘটনায় আরেকটি পাল্টা মামলা হয়েছে বলে জানান বিএনপির কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান সিনহা। তিনি বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে করা মামলা আমি আইনিভাবে মোকাবিলা করব। তবে গতকালের (বুধবার) ঘটনায় যারা মূলত দায়ী, তাদের বিরুদ্ধে আমার পক্ষের আহতরা মামলা করেছে। এতে আসামি করা হয়েছে রিপন মল্লিককে।’ রিপন মল্লিক মুন্সিগঞ্জ জেলা বিএনপির সহসভাপতি।

মিজানুর রহমান সিনহা দাবি করেন, ‘সংঘর্ষের সময় আমরা নিজেরাই পুলিশের নিরাপত্তাবলয়ের মধ্যে ছিলাম। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া জরুরি। আমি বিএনপির মনোনয়ন নিয়ে মুন্সিগঞ্জ-২ আসনে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব। জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ নিশ্চিত। তাই আওয়ামী লীগের লোকজনের সঙ্গে মিলে আমার লোকজনের ওপর হামলা চালানো হয়েছে।’

তবে টঙ্গীবাড়ী থানার ওসি জানিয়েছেন, মিজানুর রহমান সিনহা পক্ষের কেউ এখনো কোনো মামলা করেনি।

এ ব্যাপারে রিপন মল্লিকের বক্তব্যের জন্য যোগাযোগ করা হলেও তাঁর বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তবে মুন্সিগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি আবদুল হাই বলেন, ‘আমি নিজের নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত আছি। এসব ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না। তবে বিএনপি এখন এমন অবস্থায় নেই যে কেউ কোনো সংঘর্ষে জড়াবে।’

সূত্র: এনটিভি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here