শ্রীনগরে র‌্যাবের অভিযানে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গুলিসহ ডাকাত দল গ্রেফতার

৩১ অক্টোম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:

20191030_182841র‌্যাবের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই সমাজে বিশৃংখলা সৃষ্টিকারী, মাদক ব্যবসায়ী, জঙ্গী সন্ত্রাসী, অস্ত্র ব্যবসায়ী, ডাকাত, জলদস্যু, কালোবাজারী ও মানব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ২৯/১০/২০১৯ তারিখে রাত আনুমানিক ১১.৩৫ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় যে, মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানাধীন বেলতলী গ্রামে ডাকতির উদ্দেশ্যে অবস্থান করিতেছে। এরুপ তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর কমান্ডার পুলিশ সুপার মোঃ এনায়েত হোসেন মান্নান এর নেতৃত্বে একটি চৌকস আভিযানিক দল আনুমানিক ১২.১৫ ঘটিকার সময় উল্লেখিত ঘটনা স্থলে অভিযান পরিচালনা করলে নিম্মলিখিত ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্যদেরকে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় তৈরি পাইপ গান, ০২ রাউন্ড গুলি, হাসুয়া, চাপাটি ও ডেগার সহ গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ডাকাত ৪ জন:

১। মো: রকিব শিকদার @ রকি (৩০), পিতা- মোহাম্মদ শিকদার, সাং- দক্ষিন রাঙ্গমালিয়া, থানা- সিরাজদিখান, জেলা-মুন্সিগঞ্জ
২। মো: রনি হাওলাদার (৩০), পিতা- দেলোয়ার হাওলাদার, সাং- কুসুমপুর বউবাজার, থানা- সিরাজদিখান, জেলা-মুন্সিগঞ্জ
৩। । বাবু শেখ (২১), পিতা- কোরবান শেখ, সাং- কুসুমপুর, থানা-সিরাজদিখান , জেলা-মুন্সিগঞ্জ
৪। জনি হাওলাদার (২৫), পিতা- আলাউদ্দিন হাওলাদার, সাং- ব্রাক্ষন খোলা, থানা- শ্রীনগর, জেলা-মুন্সিগঞ্জ

বর্ণিত ডাকাতদের নিকট হতে উদ্ধারকৃত মালামাল:
ক) ১টি দেশীয় তৈরি পাইপগান
খ) ২ রাউন্ড গুলি
গ) ১টি দেশীয় তৈরী হাসুয়া
ঘ) ১ টি চাপাতি
ঙ) ১ ধারাল অস্ত্র ডেগার
চ) ৩ টি তিন চাকা বিশিষ্ট ব্যাটারী চালিত অটোবাইক
উল্লেখ্য যে, বর্ণিত ডাকাত দলের সদস্যরা দীর্ঘদিন যাবৎ মুন্সিগঞ্জ জেলার বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ অস্ত্র প্রদর্শন ও ভয়ভীতি দেখাইয়া ডাকাতি, দস্যুতা, ছিনতাইয়ের কার্যক্রম করে আসছে। তাদের ডাকাতি, দস্যুতার কারণে এলাকার সাধারণ মানুষ জিম্মি হয়ে পড়েছে ।
উক্ত ডাকাত দলের সদস্যরা মানুষের জানমাল ক্ষয়ক্ষতি ও গুরুত্বর আঘাত করে অটোবাইক, সিএজি প্রাইভেটকার সহ বিভিন্ন গাড়ী ডাকাতি করে মোবাইল ও টাকা নিয়ে যায় এবং গাড়ীর ড্রাইভারকে মারপিট করে, অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে, হাত-পা বেধে, মুখে কাপড় বেধে পানিতে ফেলে দেয় বলে জানা যায়। কোন কোন ক্ষেত্রে গাড়ী ভাড়া নিয়ে যাত্রী হিসেবে উঠে বিভিন্ন জায়গায় ঘুড়িয়ে নির্জন রাস্তায় নিয়ে গাড়ী, মোবাইল, টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায় এবং বয়স্ক দূর্বল লোকদের গাড়ী থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে সাথে থাকা নগদ টাকা-পয়সা,
মোবাইল ও গাড়ী ছিনিয়ে নিয়ে মারপিট করে বলে ডাকাতি/ছিনতাইয়ের অনেক ঘটনা জানা যায়। উক্ত ডাকাত দল নতুন গাড়ী টার্গেট করে। গাড়ীর ছিনিয়ে নিয়ে রং ও সামান্য ডিজাইন পরিবর্তন করে বিক্রি করে থাকে। এছাড়া গাড়ীর ব্যাটারী আলাদা বিক্রি করে। গ্রেফতাকৃত ডাকাতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে ইছাপুরা চৌরাস্থায় সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকায় ডাকাত দলের সদস্য জনি হাওলাদারের গ্যারেজ থেকে ২ টি অটো-বাইক উদ্ধার করা হয় এবং ঘটনা স্থল থেকে আরেকটি অটো-বাইক উদ্ধারসহ মোট ৩ টি ডাকাতি করে ছিনিয়ে নেওয় অটো-বাইক উদ্ধার করা হয়। তারা এলাকায় ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য বলে স্থানীয়দের নিকট হতে জানা যায়।
উক্ত ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্যদের বিরুদ্ধে মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানায় একটি ডাকাতি ও একটি অস্ত্র আইনে দুইটি পৃথক মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here