বাংলাদেশের পিঠা এদেশের মূলধারায় প্রতিষ্ঠিত করাই আমাদের উদ্দেশ্য ও লক্ষ : সাংবাদিক সম্মেলনে খুলনার বক্তারা

২০ নভেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার, মুন্সিগঞ্জ নিউজ ডটকম:
DSC_0619 copy
পিঠা বাংলাদেশের সংষ্কৃতি আর ঐতিহ্যের এক অবিচ্ছেদ্য অংগ । দেশের যে কোন উৎসব আনন্দে মিলে মিশে একাকার হয়ে আছে বাহারি সব  পিঠা।বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী  এ সব   পিঠাকে ব্রিটেন সহ ইউরোপে ব্যাপকভাবে পরিচিতির মাধ্যমে  এদেশের মূল ধারায় পিঠাকে একটা  শিল্প হিসাবে  প্রতিষ্ঠিত করতে হবে।
বিশ্বব্যাপী পিঠা যাতে ডেসার্ট ও ব্রেকফাস্ট  আইটেম হিসাবে  জায়গা করে নিতে পারে সে উদ্দেশ্যকে সামনে  নিয়ে ধারাবাহিকভাবে কিছু কাজ করা পরিকল্পনা করেছি আমরা  । সেই ধারাবাহিকতার প্রথম ধাপ এইবারের পিঠা উৎসব।গত  ১৯ নভেম্বর মঙ্গলবার  হোইটচ্যাপেলে আমরা খুলনা বাসী  আয়োজিত   সংবাদ সম্মেলন বক্তারা এসব কথা বলেন।
74647567_102517174551985_679690454471540736_oসম্মেলনে পিঠা উৎসবের প্রধান সমন্বয়ক আইনজীবী আমিনুর রহমান লিখিত বক্তব্য পড়ে সুনান। এ সময় তার পশে আরো উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক শেখ মহিতুর রহমান বাবলু ,সুন্দরবন ফাউন্ডেশন ইউ কে’র সভাপতি আবু সুফিয়ান ঝিলাম ,সুলতানা শেখ ও আনিতা ইসলাম।  পিঠা উৎসবে  প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন সাইদা মুনা তাসনীম- মান্যবর হাইকমিশণার  বাংলাদেশ হাই কমিশন লন্ডন ,
মান্যবর সংসদ সদস্য  রুশনারা আলী, মান্যবর মেয়র  জন বিগস- টাওয়ার হ্যামলেট কাউন্সিল । এছাড়াও  স্থানীয় কাউন্সিলরগণসহ সমাজের সব শ্রেণীর বিপুল পরিমান দেশি বিদেশি অতিথি এবং দর্শনার্থীর  সমাগম হবে বলে আয়োজকরা  আশাবাদী ।
আগামী ২৩ নভেম্বর শনিবার Ensign Youth Club Wellclose  Street, E1 5HA হলে অনুষ্ঠিত পিঠা মেলায় দক্ষিনাঞ্চলের তথা খুলনা এলাকার পিঠার স্বাধ গ্রহণ  ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করতে  সকলকে সপরিবারে উপস্থিত থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানান আইনজীবী আমিনুর রহমান।
 এক প্রশ্নের জবাবে সাংবাদিক শেখ মহিতুর রহমান বাবলু  বলেন আমাদের পূর্ব পুরুষেদের  অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল ব্রিটেনে বিশাল করি শিল্প।এটা আমাদের অহংকার। তিনি দুঃখ প্রকাশ করে আরো বলেন নানা কারণে এ শিল্প আজ রুগ্ন, ক্ষতি গ্রস্থ।  ব্রিটেন সহ পশ্চিমা বিশ্বের মূলধারায়  বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী পিঠা পুলির  প্রচার প্রসার বাড়াতে হবে।ফিরিয়ে আনতে হবে আমাদের হারানো প্রায় পুরাতন সেই ঐতিহ্য।
পশ্চিমাদের প্রতিটা মেনুতে দেশের পিঠা পুলি জাগা করাতে সবাইকে যে যার জাগা থেকে কাজ করতে হবে। তবেই   আমাদের লক্ষ্য পূরণ হবে সময়ের ব্যাপার মাত্র । এতে উপকৃত হবে আমাদের জন্মভূমি বাংলাদেশ।  রক্ষা পাবে এদেশের রুগ্ন কারী শিল্প। মাথা উঁচু করে থাকতে পারবে  প্রবাসীরা। দেশের বাইরে আমাদের ধারাবাহিক সফলতার ডানায় যোগ হবে নতুন নতুন পালক।
এমন একটি গঠন মূলক কাজে বাংলাদেশ সরকার , স্থানীও হাই কমিশন ও গণমাধম  সার্বিক সহযোগিতার হাত বাড়াবেন বলে আসা প্রকাশ করেন এই প্রবাসী সাংবাদিক।
সংবাদ সম্মেলনে  আয়োজকদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার ফয়সাল জামিল,  লন্ডন ক্রিকেট লীগ (এলসিএল) এর সাধারণসম্পাদক নাহিদ নেওয়াজ রানা , বি এম ওবায়দুল হক আজমীর,শাহীন খুরশিদ ,রাসেল শাহরিয়ার  , কামরুল হাসান তুষার ,এম এ সিপার ,এম ডি ইমাম হোসাইন প্রমুখ।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here