জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত

গত ১৯ এপ্রিল ২০২০ খ্রি. তারিখে মুন্সীগঞ্জ জেলার বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক মো: মনিরুজ্জামান তালুকদার এর নির্দেশ মোতাবেক ৪টি সচেতনতামূলক অভিযান ও মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

এই দিন সকাল থেকে জেলা সদর এর বিভিন্ন স্থানে পর্যায়ক্রমে অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিট্রেট মেজবাহ উল সাবেরিন, ফারাশিদ বিন এনাম, বিকাশ চন্দ্র বর্মণ এবং আশরাফুল মুন্সীগঞ্জ বাজার, সুপার মার্কেট, মানিকপুর, নতুনগাঁও, পঞ্চসার চৌরাস্তা, রামেরগাঁও চৌরাস্তা, জোরপুকুরপাড়, মুক্তারপুর ব্রিজেরউত্তর

ও দক্ষিণ পাড়, বিসিক শিল্পনগরী, কাটাখালি বাজার, মুন্সীরহাট বাজার, শহর আলী পাগলার মাজার, গজারিয়াকান্দি, জেলখানা রোড, মুন্সিরহাট, টরকি, চর কদমতলী, চর ডুমুরিয়া, মাকহাটী, বাগেশ্বর, সাতানিখাল, লোহারপুল, কাটাখালি এলাকা সমুহে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। প্রাণঘাতী করোনা

ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ ও নির্দেশনা সঠিকভাবে বাস্তবায়নের জন্য জেলা প্রশাসন,স্বাস্থ্য বিভাগ, জেলা পুলিশ ও সেনা বাহিনী একযোগে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় সচেতনতামূলক অভিযান আরও জোরদার করা হয়েছে। এসময় এলাকাগুলোতে টহল দিয়ে

ভিড় ডিসপার্স করা ও সাধারণ মানুষকে সচেতন করার যথাসাধ্য চেষ্টা করা হয়েছে। এ সময় বিনা প্রয়োজনে যারা বাইরে ঘোরাফেরা করছিলো তাদের কে বাসায় ফেরত পাঠানো হয়। নিত্য প্র্যয়োজনীয় দোকান না হওয়ায় কয়েকটি দোকান বন্ধ করে দেয়া হয়। মুক্তারপুর ব্রিজের দুই পাড়ে অবস্থান করে নারায়ণগঞ্জ থেকে যেন কেউ

আসতে না পারে তা নিশ্চিত করার জন্য টোল কর্তৃপক্ষ ও দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশের সাথে আলোচনা করে লকডাউনের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। যথাযথ নিয়ম মেনে খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত আছে এবং প্রয়োজনবোধে তালিকা অনুযায়ী অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী

পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। অতীব প্রয়োজন ব্যতীত জনসাধারণকে বাইরে না থাকার বিষয়ে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নির্দেশনা অমান্য করলে যথাযথ আইন প্রয়োগের মাধ্যমে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সমগ্র মুন্সীগঞ্জ এ দিন মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১০টি অভিযানে ১১টি মামলায় মোট ১১ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। মোবাইল কোর্টগুলো পরিচালনা করে মুন্সীগঞ্জ জেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিট্রেটবৃন্দ। প্রেসনোট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here