শ্রীনগরে যুবলীগ নেতার মারধরে স্বামী-স্ত্রী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক: শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর ইউনিয়নের ভূইচিত্র গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবলীগ নেতার মারধরে স্বামী-স্ত্রী আহত হয়েছে। গত ১৮ এপ্রিল সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে ষোলঘর ইউনিয়নের ভূইচিত্র গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় ষোলগর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন সম্পাদক অনিল আহমেদ জয়ের

বিরুদ্ধে শ্রীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। স্থানীয়ভাবে জানা যায়, যুবলীগ নেতা জয়ের বিরুদ্ধে এর আগে মাদক সেবন করে মাতলামী, ইয়াসমিন দেলোয়ার হাসপাতালে ভাংচুর সহ বিভিন্ন অভিযোগে শ্রীনগর থানায় একাধিক মামলা হয়েছে। নিজে ষোলঘর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন সম্পাদক হলেও নামের সাথে

অবৈধ ভাবে ব্যবহার করেন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের পদ। যুবলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে দাপিয়ে বেড়ায় পুরো ইউনিয়ন। তার জুলূম অত্যাচারে সাধারণ মানুষ এখন অতিষ্ট। এর ধারাবাহিকতায় গত ১৮ এপ্রিল তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তারই গ্রামের আক্কাস মোল্লা ও আক্কাস মোল্লার স্ত্রীকে কাঠের চলা দিয়ে এলোপাথারীভাবে মারধর করে।

তাদের চিৎকারে আশ পাশের লোকজন এসে আক্কাস মোল্লা ও তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আক্কাস মোল্লা জানান, অনিল আহমেদ জয় ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে আমার বাড়ির পাশে ময়লা আবর্জনা ফেলে।

তার ভয়ে আমি কোন প্রতিবাদ করিনি। কয়েকদিন ধরে দুর্গন্ধে বাড়িতে থাকা দায় হয়ে উঠে। বিষয়টি আমার স্ত্রী অনিলের এক আত্নীয়কে জানায়। এতে অনিল ক্ষিপ্ত হয়ে আমার বাড়িতে এসে আমাকে ও আমার স্ত্রীকে মারধর করে।

এব্যাপারে আনিল আহম্মেদ জয় এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সত্য নয়। ওই দিন সামান্য ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় তারা আমার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছে। আমিও তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছি।

এব্যাপারে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ হেদায়তুল ইসলাম ভূঞা এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এ ব্যাপারে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে যথাযথ ব্যবস্থা নিব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here