মুন্সীগঞ্জ কারাগার থেকে আরো ৪১জন কারাবন্দির মুক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনার কারণে শনিবার দুপুরে ৪১জন কারাবন্দি মুন্সীগঞ্জ কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছে। মুক্তি প্রাপ্তরা সকলেই তিন মাসের অধিক সময় কারাভোগ করছিলেন। তারা অনুর্ধ ছয় মাসের বিনাশ্রম সাজা প্রাপ্ত কারাবন্দি ছিলেন। এদের কারো জরিমানা না থাকায় এদেরকে মুক্তি দেয়া হয়।

তবে জরিমানার টাকা পরিশোধ করতে না পারার কারণে ২০ জনের মতো কারাবন্দির মুক্তি আটকে রয়েছে। সরকার এ কারাগারটির ৭১ জনের মুক্তি আদেশ জারি করেছেন। এর আগে আরও ১০জন কারাবন্দিকে মুক্তি দেয় হয়। ৩৬৩ জনের ধারণ ক্ষমতা সম্পর্ণ মুন্সীগঞ্জ জেলা কারাগারটিতে কয়েদি ও হাজতি মিলে ৭৬৩জন কারাবন্দি এ কারাগারে অবস্থান করছিলো।

মুন্সীগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল সুপার মো. নুরুন্নবী ভূইয়া জানান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ থেকে লঘুদণ্ড প্রাপ্তদের সাজা মওকুফ করায় করোনার কারণে এই মুক্তির আদেশ দেয় জারি করেন। মুন্সীগঞ্জ কারা কর্তৃপক্ষ ৭১জন কয়েদী এবং ২শ’ হাজতী সংখ্যা মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করে। পরে সরকার তিন দফায় ৭১জন কয়েদীকেই মুক্তির আদেশ দেন। এর মধ্যে প্রথম দফায় একজন এবং দ্বিতীয় দফায় পাঁচ জন এবং তৃতীয় দফায় বাকী ৬৫ জনের আদেশ জারি করা হয়।

মুন্সীগঞ্জ কারা কর্তৃপক্ষ শুক্রবার রাতে তৃতীয় দফার মুক্তির আদেশ পেয়ে শনিবার দুপুরে ৪১জনকে মুক্তি দেয়। এই তালিকার ৫জন এর আগেই স্বাভাবিকভাবে মুক্তি পেয়ে যায়। তবে এখনও জরিমানার টাকা পরিশোধ করতে না পারায় তৃতীয় দফার ১৯ জন এবং দ্বিতীয় দফার একজনের এখনও মুক্তি হয়নি।

মামলার আদেশ অনুযায়ী ধার্য্য করা জরিমানার টাকা পরিশোধ করলেই মুক্তি দেয়ার পরই মুক্তি পাবে। নতুবা আনাদায়ী সাজা খেটে তারা মুক্তি পাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here