চুয়াডাঙ্গায় আরও ৫ জন করোনায় আক্রান্ত, হিসাবরক্ষণ অফিস লকডাউন

ম.নি. ডেস্ক: চুয়াডাঙ্গায় নতুন করে জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসের তিনজন ও সদর হাসপাতালের দুইজন স্টাফ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাব থেকে তাদের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট সিভিল সার্জন অফিসে আসে। আক্রান্তরা বর্তমানে নিজ নিজ বাড়িতে রয়েছেন।

চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন ডা. এএসএম মারুফ হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসের তিনজন করোনাভাইরাসে আক্তান্ত হওয়ার কারণে অফিসটি লকডাউন করা হয়েছে। জানা গেছে, কয়েক দিন ধরে জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে।

গতকাল মঙ্গলবার নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচজন। এরা হলেন- চুয়াডাঙ্গা হিসাবরক্ষণ অফিসের তিনজন, সদর হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলোজিস্ট ও সদর উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের একজন। আক্রান্ত পাঁচজনই বর্তমানে নিজ বাড়িতে আইসোলেসনে রয়েছেন। চুয়াডাঙ্গার চারটি উপজেলায় এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩১ জন। মোট নমুনা পাঠানো হয়েছে ৫০৮টি।

এ পর্যন্ত রিপোর্ট এসেছে ৪১৬টি। সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে আছেন ১০ জন। চুয়াডাঙ্গা জেলা হিসাবরক্ষণ অফিসের এক কর্মকর্তা আক্রান্ত হওয়ার পর অন্যান্যের নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

এর মধ্যে পরীক্ষা করে তিনজনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সিভিল সার্জন ডা. এএসএম মারুফ হাসান বলেন, আজকে (গতকাল মঙ্গলবার) ৬১ জনের রিপোর্ট যশোর থেকে এসেছে। এর মধ্য পাঁচজনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আক্রান্তদের নিয়মিত চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার বলেন,

হিসাবরক্ষণ অফিস লকডাউন করা হয়েছে। অফিসের সবার নমুনা পরীক্ষা করার জন্য বলা হয়েছে। জেলায় করোনা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here