পুলিশ কনস্টেবলকে মারধরের ঘটনায় টঙ্গীবাড়ীর আ’লীগ নেতা কারাগারে

kobirkhantongibariটঙ্গীবাড়ী থানার কনস্টেবল মো: তানজিল হোসেনকে মারধর করে জখম করার ঘটনায় টঙ্গীবাড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আহসান কবির খানকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে আহসান কবির খান ও তার ছেলে নাসির খানকে মুন্সিগঞ্জ আদালতে হাজির করা হলে আমলি আদালত ৪ এর বিচারক ইমদাদুল হক নাসির খানের জামিন আদেশ দিলেও আওয়ামীলীগ নেতা কবির খানকে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন বলে আদালত সুত্রে জানাগেছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মুন্সিগঞ্জ জেলা পুলিশের বিশেষ অভিযানে হামলাকারী টঙ্গীবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কবির খান ও তার ছেলে নাছির খানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ ঘটনার সাথে জড়িত অন্য আসামিরা পলাতক রয়েছে।

জানাগেছে, বৃহস্পতিবার কবির খানের বাড়ির সামনে দিয়ে পুলিশ কনেষ্টবল তানজিল হোসান মটর সাইকেল চালিয়ে যাওয়ায় তাকে মারধর করে আহত করে কবির খান তার ছেলে নাসির খানসহ ওই পরিবারের লোকজন।

হামলায় আহত কনস্টেবল তানজিল হোসেন জানান, ‘আমার বাসা তাদের বাসার সামনের বাসা। তাদের বাসার সামনে দিয়ে আমাকে মোটরসাইকেল নিয়ে যাতায়াত করতে নিষেধ করে আসছিলো তারা। তারা বলে তাদের বাসার সামনে দিয়ে আমি হেঁটে যেতে পারবো কিন্তু মোটরবাইক নিয়ে যেতে পারবো না।

বিষয়টি নিয়ে বৃহস্পতিবার কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আমার উপর চড়াও হয় তারা । পরে ওই পরিবারের সবাই মিলে আমাকে মারধর করে জখম করে। সে আরো জানায়, সদর হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে টঙ্গীবাড়ী থানায় চলে আসছি আমি। জখম ও শরীর ব্যাথা নিয়েই থানায় চলে এসেছি।

এ বিষয়ে টঙ্গীবাড়ী থানা ওসি শাহ মো. আওলাদ হোসেন জানান, পুলিশ কনেস্টবল এর উপর হামলার ঘটনায় দুই আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে প্ররণ করলে আদালত এক আসামীর জামিন মঞ্জুর করলেও কবির খানকে জেল হাজতে প্ররণ করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here