সিরাজদিখানে সিএনজি চালককে ডেকে নিয়ে হত্যার চেষ্ঠা

received_889789684822426সিরাজদিখান প্রতিনিধি:

সিরাজদিখানে ডেকে নিয়ে সিএনজি চালক আজিজুল ইসলাম (২৫) কে হত্যার চেষ্ঠা করার অভিযোগ উঠেছে। গত ২৮ মে রাতে উপজেলার বালুরচর ইউনিয়নের খাসমহল বালুচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত অবস্থায় গাড়ী চলককে উপজেররা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজে প্রারণ করে। এ বিষয়ে

সিরাজদিখান থানায় আজিজুলের বড় বোন মুক্তি বেগম (৩৫) ৪ জনকে আসামী করে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

সরজমিনে জানা যায়, গত ২৮ মে রাত ৮ টার দিকে উপজেলার খাসমহল বালুচর গ্রামের মো. শুক্কর আলীর ছেলে আল আমিন (২৪) মোবাইল ফোনে মৃত জনাব আলীর ছেলে সিএনজি চালক আজিজুলকে ডেকে নিয়ে

তার মাকে হাসপাতালে নেয়ার কথা বলে হাবিউল মিয়ার কিন্ডার গার্ডেন্টের পূর্ব পাশে ঝোপজারে নিয়ে যায়। একই গ্রামের মো. জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মো. শাকিল (২৩),

মো. হাফিজ উদ্দিনের ছেলে মো. ইসরাফিল (২২) ও মো. মোস্তফার ছেলে মো. রনি (২৪) সহযোগীতায় পূর্ব নশত্রুতার জের ধরে প্রথমে ইসরাফিল গামছা দিয়ে আজিজুলকে বেধে ফেলে। বাকিরা পরে লোহার রড,

বাঁশের লাঠি ও কাঠের ডাসা দিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে পিটাতে থাকে। নাকে, মুখে, অন্ডোকোষে কিল, ঘুষি, লাথি মেরে জখম করে। রনি গলায় হাত দিয়ে শ্বাস রোধ করে মেরে ফেলার চেষ্ঠা করে।

আজিজুল ইসলামের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে কিল, ঘুষি মারতে মারতে পালিয়ে যায়। আরো জানান যায় অভিযুক্তরা প্রভাবশালী হওয়ার ভূক্তভোগীগের ঘটনার পর থেকে হুমকি দিয়ে আসছে। স্থানীয় ভাবে মিমাংসার করা পায়তারা চলছে।

আজিজুল আসলামের বড় বোন মুক্তি বেগম জানান, আমার ভাইকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল। আমার ভাইয়ের কোন দোষ নাই। আমি বিচার চাই। আমার ভাইকে উপজেলা হাসপাতালে থেকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠায়। আমার ভাই খুব অসুস্থ্য।

সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মো. উরিদ উদ্দিন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রাহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here