রাজশাহী নগরীতে ছয় বছরের শিশুর হাসুয়ার কোপে মায়ের মৃত্যু

মাসুদ রানা রাব্বানী:

রাজশাহী নগরীতে সাত বছরের শিশুর হাসুয়ার কোপে ফাতেমা-তুজ-জোহরা (২৮) নামের এক মায়ের মৃত্যু হয়েছে।

গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রাজশাহীর পবা উপজেলার বেড়পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত ফাতেমা-তুজ-জোহরা ওই এলাকার রবিউল ইসলামের স্ত্রী এবং রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার বিদিরপুর গ্রামের কাজিম উদ্দিনের মেয়ে।

জানা যায়, শিশুটির মায়ের কাছে বায়না ছিল পাঁচ টাকার। তা না পেয়ে হাতে থাকা হাসুয়া দিয়ে মায়ের বুকে আচমকা কোপ দেয় শিশু ফাহিম।

পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়। সেখানে থাকা কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাজশাহীর দামকুড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল ইসলাম জানান, হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনার পর রবিউল ইসলাম জানান, তার ছয় বছর বয়সী ছোট শিশু খেলছিল। এসময় সে পাঁচ টাকার বায়না করে। টাকা দিতে না চাওয়ায় সে হঠাৎ করে মায়ের বুকে হাসুয়া দিয়ে কোপ দেয়।

মায়ের বুকে রক্ত দেখে সে দুর্গাপুর বাড়ি চলে যায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং শিশুকে কোলে করে বাড়িতে নিয়ে আসে।

ওসি আরও বলেন, ঘটনার পর পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সদস্যদের আসার জন্য খবর দেওয়া হয়েছে। ওই শিশু বুঝতে না পেরে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। এখন পরিবারের সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিহতের মরদেহ রামেক হাসপাতালের হিমঘরে রাখা আছে। ময়নাতদন্তের পর মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলেও জানা তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here