শ্রীনগরে র‌্যাবের অভিযানে প্রতারক চক্ররের ২ জন গ্রেফতার

IMG20200610113128র‌্যাবের প্রতিষ্ঠা লগ্ন থেকেই সমাজে বিশৃংখলা সৃষ্টিকারী, মাদক ব্যবসায়ী, জঙ্গী সন্ত্রাসী, অস্ত্র ব্যবসায়ী, ডাকাত, জলদস্যু, কালোবাজারী ও মানব পাচারকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ০৯/০৬/২০২০ ইং তারিখ রাত আনুমানিক ২৩.১০ ঘটিকার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে

জানা যায় যে মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানাধীন জসুর্গাও মোঃ রুবেল শেখ এর ০৪র্থ তলা বিল্ডিং এর সামনে দুই জন প্রতারক চক্রের সদস্য অভিনব কৌশলে মানুষের নিকট বিশ^াস স্থাপন করে প্রতারনা মূলক ভাবে নগদ টাকা আত্নসাৎ করার উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। এরুপ তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর কোম্পানী

কমান্ডার পুলিশ সুপার মোঃ এনায়েত হোসেন মান্নান এর নেতৃত্বে একটি চৌকস আভিযানিক দল উল্লেখিত ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে অভিযান পরিচালনা করে রাত আনুমানিক ২৩.৫০ ঘটিকার সময় নিম্মলিখিত প্রতারক চক্রের ০২ জন সক্রিয় সদস্য গ্রেফতার সহ প্রতারনার কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত প্রতারক চক্রের সদস্যরা হচ্ছেন ১। আসলাম মাতব্বর (৪০), পিতা- আলামত মাতাব্বর, মাতা- বানেছা বেগম, সাং- বয়েরাতলা, থানা- শিবচর, জেলা-মাদারীপুর, এ/পি- সাং- ঢালকানগর, থানা- গেন্ডারিয়া, জেলা- ঢাকা ও ২। মোঃ বেলাল হোসেন (৩০), পিতা- মনছুরউল্লাহ ভূঁইয়া, মাতা- মোছাঃ আম্বিয়া বেগম, সাং- সোনাপুর, ফেনী সদর, জেলা- ফেনী, এ/পি- মহাখালী ওয়ালের্স গেট, বনানী, ঢাকা।

বর্ণিত প্রতারক চক্রের সদস্যদের নিকট হতে উদ্ধারকৃত মালামাল হচ্ছে ক) ৪ টি কাঁচের শিশিতে বিভিন্ন কেমিক্যাল যাহা দ্বারা সাদা কাগজে টাকা তৈরী দেখাতে রং করা হয়, খ) সোডা ১৫০ গ্রাম (টাকা তৈরী কাজে ব্যবহৃত), গ) ১০০ টাকা মূল্যমান নোটের মাপের সাদা কাগজের টুকরা ৬ (ছয়) টি, ঘ) তিনটি কাচের টুকরা

(যাহার উপর টাকার মাপে কাগজ কাটা হত), ঙ) ১ টি চাকু, চ) নগদ ৪৫৭/- (চারশত সাতান্ন) টাকা ও ছ) ৩ (তিন) টি মোবাইল সেট যাহা প্রতারনার কাজে ব্যবহার করা হত।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা পরস্পর যোগসাজসে প্রথমে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের ফোন করে তাদের নিকট থাকা কেমিক্যাল দিয়ে নতুন লাক্ষ লাক্ষ টাকা তৈরী করে দিবে বলে সাধারণ মানুষকে প্রলভন দেখায়। এছাড়া আসামীদের কাছ থেকে উদ্ধারকৃত ফ্লাট, গ্লাসের টুকরা যাহার উপরে সাদা কাগজ রেখে

বিভিন্ন ব্যাংক নোটের সাইজ করে কেটে উদ্ধারকৃত বিভিন্ন রং ব্যবহার করে সোডা গুলিয়ে সোডা ওয়াটার দিয়ে ধৌত করে হাত সাফাই করে নতুন টাকা তৈরী করেছে মর্মে দেখায় এবং প্রতারিত ব্যক্তি/ব্যবসায়ীদের বলে লাক্ষ লাক্ষ নতুন টাকা তৈরী করে দিবে। তবে ২০% নগদ প্রকৃত টাকা প্রথমে তাদের দিতে হবে। জানা যায় যে

এভাবেই তারা প্রতারনার ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে কেটে পরার ধান্ধায় ছিল। সংবাদ পেয়ে র‌্যাব-১১ এর টিম দ্রুত ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আলামত সহ গ্রেফতার করা সম্ভব হয়। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বহু লোক এদের প্রলোভন ও প্রতারনার খপ্পরে পরে নিঃস্ব সর্বশান্ত হয়ে যাচ্ছে। এরা একটি চক্র হিসাবে কাজ করে।

এই চক্রের অন্যন্য সদস্যদের বিষয়ে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। তথ্য প্রমান পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উক্ত প্রতারক চক্রের সদস্যদের বিরুদ্ধে মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানায় একটি প্রতারনার মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here