টঙ্গিবাড়ীতে যুবকের আত্নগোপন

118007631_328866105149293_1936463004727917016_nভিসা নবায়নের কথা বলে সংযুক্ত আরব আমিরাত দুবাই হতে ২০থেকে ২৫জন ব্যাক্তির নিকট থেকে অর্ধকোটি টাকা আত্নসাৎ করে মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ীতে গাঁ ঢাকা দিয়ে আছেন দুবাই প্রাবাসী যুবক হালিম সেখ।

টাকা নিয়ে ভিসা নবায়ন করে না দেওয়ায় সংযুক্ত আরব আমিরাত দুবাইয়ে কয়েকদফা মারধরের শীকার হন হালিম।

পরে প্রায় অর্ধকোটি টাকা নিয়ে পালিয়ে এসে গাঁ ঢাকা দেন নিজ বাড়ি মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার আড়িয়ল গ্রামের সানবাড়ি এলাকায়। সে ওই গ্রামের কুদ্দুস সেখের ছেলে।

একই উপজেলার বলই গ্রামের মান্নান খানের ছেলে পিন্টু খান দুবাইয়ের সারজায় থাকা অবস্থায় ভিসা নবায়ন করে দেওয়ার কথা বলে তার কাছ হতে ৩ লক্ষ ২০ হাজার টাকা নেয় হালিম সেখ। টাকা নিয়ে ভিসা নবায়ন না করে দিয়ে চলে আসেন বাংলাদেশে। পরে ভিসা না থাকায় পিন্টু খান সেখানকার পুলিশের হাতে ধরা পরে সর্বস্ব খুইয়ে সারজার ১০নং জেলে ১৯ দিন জেল খেটে তাকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় বাংলাদেশে।

এছাড়া হালিম সেখ কুমিল্লা জেলার জাবেদ, রংপুর জেলার নুরু মিয়া, কুষ্টিয়া জেলার আহসানউল্লাহ, শরিয়তপুর জেলার হালিমসহ প্রায় অর্ধশত লোকের নিটক হতে ভিসা নবায়ন করে দেওয়ার কথা বলে প্রা্য় অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে ভ্থক্তভোগীরা অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে দুবাই থেকে মুঠোফোনে কুমিল্লা জেলার জাবেদ জানান, হালিম সেখ আমার ভিসা নবায়ন করে দেওয়ার কথা বলে আমার কাছ হতে ১ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা নিয়েছে। একই অভিযোগ করেন রংপুর জেলার নুরু মিয়া। এদিকে টঙ্গিবাড়ী উপজেলা বলই গ্রামের পিন্টু খান জানান, হালিম আমার ভিসা নবায়ন করে দেওয়ার কথা বলে ২০১৮ সালের ২৩ অক্টোবর দুবাইয়ের সারজা হতে ৩ লক্ষ ২০ হাজার টাকা নেয় ।

পরে দির্ঘদিন আমার ভিসা নবায়ন না করে দিয়ে আমাকে ঘুরাইতে থাকে । পরে বিগত প্রায় ৬ মাস আগে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে আমার ভিসা নবায়ন না করে দিয়ে টাকা নিয়ে আত্নগোপন করে বাংলাদাশে চলে আসে।

পরে আমার ভিসা না থাকায় সারজার পুলিশ আমায় আটক করে আমাকে ১৯ দিন জেল খাটিয়ে দেশে পাঠিয় দেয়। এ ব্যাপারে আমি টঙ্গিবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করলে আমার টাকা ফেরত দিবে প্রতিশ্রুতি দিয়েও টাকা ফেরত দিচ্ছেনা।

এ ব্যাপারে হালিম সেখের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে সে জানায়, আমাকে মিথ্যা হয়রাণী করার জন্য আমার বিরুদ্ধে পিন্টু খান থানায় একটি মিথ্যা অভিযোগ করেছে। দুবাইতে টাকা নিয়ে ভিসা নবায়ন করে না দেওয়ায় মারধরের শিকারের বিষয়ে জানতে চাইলে সে বলে আমি পিন্টু খানের ভাগ্নি বিবাহ করি নাই বলে আমাকে দুবাইয়ে মারধর করে। আমার নিকট কেউ কোন টাকা পাবেনা। দুবাই হতে জাবেদ, নুরু মিয়াসহ অন্যান্যদের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে সে এ বিষয়ে এড়িয়ে গিয়ে বলেন ব্যাপারটি আমি দেখতাছি বলে মোবাইল সংযোগ কেটে দেন।

ব্যাপারে টঙ্গিবাড়ী থানা পুলিশ উপ-পরিদর্শক এসআই নুরে আলম সিদ্দিকী জানান, পিন্টু খানের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনা যেহেতু বিদেশে আমি বিষয়টি একটি মিমাংশার চেষ্টা করি। কিন্তু হালিম খান মিমাংশার বিষয়টি না মানায় পরে আর সমঝোতা করা সম্ভব হয়নি। পরে আমি পিন্টু খানকে আদালতে অভিযোগ দায়ের করতে বলেছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here