মুক্তারপুর-ফিরিঙ্গিবাজারের দুটি রাস্তা খানাখন্দে ভরা

1মোহাম্মদ সেলিম ও মো: আনোয়ার হোসেন:

মুক্তারপুর বাজার ও ফিরিঙ্গি বাজারের ইস্টিমার ঘাটের মধ্যে দুটি রাস্তাই বর্তমানে খানাখন্দে ভরা। বছরের পর বছর এই দুটি রাস্তাই পুন:সংস্কার না করায় এ রাস্তায় বর্তমানে একাধিক স্থানে ছোট বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সেই গর্তে এখন বৃষ্টির পানিতে দিনভর পানিতে পানিতে ভর্তি হয়ে থাকে।

এর ফলে এখন এ পথে কোন পথচারী কিংবা কোন ব্যক্তি কোনভাবে ঠিকঠাকভাবে চলাচল করতে পারে না বলে অভিযোগ উঠেছে। মুক্তারপুর ফেরিঘাট থেকে মুক্তারপুর বাজার পর্যন্ত রাস্তার বিভিন্ন স্থানে রাস্তার পিচের কাপেটিং উঠে গেছে ইতোমধ্যে। তাতে এ রাস্তায় এখন বর্তমানে একাধিক গর্ত দেখা দিয়েছে।

এ বাজারে কেনাকাটা করতে আসা যাওয়া লোকজনরা এ ভাঙ্গা রাস্তায় চলাচলে অনেক ধরণের অসুবিধার মধ্যে পড়ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ বাজারের রাস্তার পাশে রয়েছে এখানে একাধিক হিমাগার। সেই হিমাগার থেকে প্রতিদিনই বের হচ্ছে গোল আলুর শত শত বস্তা। এসব আলুর বস্তা রিক্সা করে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যাচ্ছে এখানকার ব্যবসায়িরা। কখনো কখনো ঢেলাগাড়িতে করেও আলু নিয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে ব্যবসায়িরা।

2কিন্তু রাস্তার বেহাল দশার কারণে আলুর পাইকাররা এখানে অসুবিধার মধ্যে রয়েছেন প্রতি মুহূতে। অন্যদিকে ফিরিঙ্গি বাজারে ইস্টিমার ঘাটেও অনুরূপ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এখানে শতাধিক চাউলের আড়ৎ রয়েছে। আরো রয়েছে একাধিক অটো রাইস মিল।

এখান থেকে এ পথ ধরে বিনোদপুর যাওয়া যায়। এ পথ ধরে রিকাবি বাজারেও যাওয়া যায়। এ পথের মধ্যে রয়েছে চাউলের অনেক আড়ৎ। রাস্তার এই অবস্থার কারণে এ পথে এখন চলাচল অনেকটাই দু:স্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here