নোয়াদ্দাতে চাঁদা না দেয়ায় বালুর পাইপসহ যন্ত্রপাতি ভাঙ্গচুর

9মোহাম্মদ সেলিম ও মো: সালমান:

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের নোয়াদ্দা এলাকায় চাঁদা না দেয়ায় স্থানীয় চাঁদাবাজরা রাতের শেষ প্রহরে ড্রেজারের পাইপসহ বিভিন্ন যন্ত্রপাতি ভাঙ্গচুর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া চাঁদাবাজরা সেখান থেকে বেশকিছু যন্ত্রপাতি নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে।

এই নিয়ে সেখানে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে। এই ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার রাত তিনটার পরে। এখানকার বালু ব্যবসায়িরা জানান, তারা রাত তিনটা পর্যন্ত এখানে নিয়মিত কাজ শেষ করে নিত্যদিনের মতো শেষ প্রহরে বাড়ি ফিরে যান।

আর বাড়ি ফিরে যাওয়ার পরেই এখানকার পূর্বে চাঁদা দাবিকারীরা শেষ প্রহরে এখানে হামলা চালায় বলে বালু ব্যবসায়িরা দাবি করেন। এ বিষয়টি যে কোন সময় রক্তক্ষয়ি সংর্ঘষে মোড় নিতে পারে বলে স্থানীয়রা আশংকা করছেন।

জানা যায়, ঈদ উল ফিতরের পরে ১৩ আগষ্টের দিকে নোয়াদ্দা গ্রামের বালু ব্যবসায়িরা এখানে পাইপের মাধ্যমে বিভিন্ন স্থানে বালু ভরাটের কাজ শুরু করেন এখানকার রজত রেখা নদীর তীরে পাইপ লাগিয়ে কয়েক মাইলের মধ্যে তারা এখানে বালুর ব্যবসা করে আসছিলেন।

কিন্তু ঘটনার কয়েক দিন আগে স্থানীয় কয়েকজন চাঁদাবাজ এখানকার বালু ব্যবসায়িদের কাছ থেকে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করেন। কিন্তু বালু ব্যবসায়িরা সেই টাকা দিতে অস্বীকার করায় ঐদিন রাতের শেষ প্রহরে চাঁদাবাজরা সেখানে হামলা চালায়।

8হামলাকারীরা নদী থেকে আসা বিভিন্ন স্থানের একাধিক পাইপ কোন ভারি জিনিসের আঘাতে ভেঙ্গে ফেলে বলে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া চাঁদাবাজরা সেখান থেকে বালু সরবরাহের বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙ্গচুর করা হয় অনেক জিনিসপত্র নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এর ফলে এখানকার বালু ব্যবসায়িদের ক্ষতির পরিমাণ হচ্ছে প্রায় ৩ লাখ টাকার মতো। তাতে এখানকার বালু ব্যবসায়িরা মারাত্নকভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here